পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত কক্সবাজার

0

পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার। ঈদুল আযহা উপলক্ষে সমুদ্রনগরী পর্যটকের উপচে পড়া ভিড়। সমুদ্র সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে প্রচুর ভিড় দেখা গেছে।

ঈদের ছুটি আরো দুইদিন রয়েছে। তাই পর্যটকদের ভিড় আরো বাড়তে পারে বলে আশাবাদী সংশ্লিষ্টরা। পর্যটকদের এমন আনাগোনাতে সন্তুষ্ট ব্যবসায়ীরা।

ইনানী ক্যাফের মালিক জাহাঙ্গীর আলম জয়নিউজকে বলেন, ‘পর্যটকসহ স্থানীয় অতিথিদের বরণে আমরা নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। বিশেষ করে শিশুদের বিনোদনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। দোলনা, রাইড শেয়ারিং, ইলেকট্রিক নগরদোলাসহ বেশ কয়েকটি নতুন রাইড আনা হয়েছে। ঝুটিতে স্থানীয়সহ আসা পর্যটকদের বেশ সাড়া পেয়েছি।’

হোটেল-মোটেল মালিক সমিতি সূত্রে জানা যায়, ঈদুল আজহার আগের দিন থেকেই কক্সবাজারে হাজার দশেক পর্যটক অবস্থান করছিল। ঈদের দিন সকালেই এদের সঙ্গে যোগ হয়েছে আরও ১০ হাজার পর্যটক। এদের বেশিরভাগই রাতের মধ্যে কক্সবাজার শহর ত্যাগ করে। বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই নতুন পর্যটক আসতে শুরু করেছে। এ পর্যন্ত প্রায় ৪ শতাধিক হোটেল-মোটেলে লাখ ছাড়িয়েছে। এছাড়া পর্যটকদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন ছাড়।

কক্সবাজার জোনের ট্যুরিস্ট পুলিশ (এসপি) মো. জিল্লুর রহমান জয়নিউজকে জানান, ঈদ উপলক্ষে কক্সবাজার শহর ও সমুদ্র সৈকতের নিরাপত্তায় ৪৫০ জন পুলিশ, র‌্যাব, বিচকর্মী ও ট্যুরিস্ট পুলিশ কাজ করছে। পর্যটক হয়রানি রোধে সমুদ্র সৈকতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার জন্য দুইজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...