ফটোশুটে অন্তর্বাস খুলতে বাধ্য হয়েছিলাম: কঙ্গনা

0

ভারতের সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশন -এর প্রধান ছিলেন পহেলাজ নিহালানি। সিনেমায় অল্পবিস্তর ঘনিষ্ঠ দৃশ্য থাকলেই তাতেই কাঁচি চালানোর বদনাম আছে তাঁর। সিনেমা নির্মাণের সঙ্গেও ছিলেন এক সময়। এবার তাঁর বিরুদ্ধে বড় অভিযোগ তুলেছেন বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা কঙ্গনা রানাওয়াত।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সেন্সর বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান পহেলাজ নিহালানির বিরুদ্ধে অভিযোগ করে কঙ্গনা বলেন, পহেলাজ নিহালানি আমাকে তাঁর ‘আই লাভ ইউ বস’ বলে একটি ছবিতে কাজ করার প্রস্তাব দেন। যে ছবির ফটোশুটের জন্য আমাকে কোনো অন্তর্বাস ছাড়াই ট্রান্সপারেন্ট পোশাক পরতে বাধ্য করেছিলেন। যদিও আমি পরে সেই ছবিটা থেকে সরে আসি।

কঙ্গনা আরও বলেন, ছবির গল্পে মধ্যবয়সী অফিসের বসের সঙ্গে অল্পবয়সী যুবতীর প্রেম দেখানো হয়েছিল। যে ছবির গল্প আমার পর্নোগ্রাফির মতোই মনে হয়েছিল। তাই আমি এই ছবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলাম।

পরে আমি অন্য ছবির জন্য অডিশন দিতে শুরু করি। তখনই ২০০৬ সালে পরিচালক অনুরাগ বসুর ‘গ্যাংস্টার’ ছবিতে কাজ করার সুযোগ পাই। পাশাপাশি পুরী জগন্নাথের ‘পকিরি’ ছবিতেও সুযোগ পাই। দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টার পর একসঙ্গে দুটি ছবি হাতে আসে। তবে আমি ‘গ্যাংস্টার’ ছবিটিকেই বেছে নিই।

প্রসঙ্গত, কঙ্গনা রানাওয়াত এই মুহূর্তে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এখন তিনি একতা কাপুরের ‘মেন্টাল হ্যায় কেয়া’ ছবির প্রচার নিয়ে ব্যস্ত। ছবিটি আজ (২৯ মার্চ) মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

জয়নিউজ/পলাশ/শহীদ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...