পোর্ট সিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন রোববার

0

নগরের পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন রোববার (৩১ মার্চ)। এতে ২ হাজার ৮৮ জন শিক্ষার্থীকে ডিগ্রি দেওয়া হবে। সমাবর্তনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরল আনোয়ার। রোববার সকাল ১০টায় পাঁচলাইশে অবস্থিত কমিউনিটি হল দি কিং অব চিটাগংয়ে এ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে।

সমাবর্তনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও পিসিআইইউর প্রতিষ্ঠাতা, প্রেসিডেন্ট ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান এনামুল হক শামীম, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এবং বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান।

এতে বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও প্রফেসর ইমিরেটাস ড. এ কে আজাদ চৌধুরী।

সংবাদ সম্মেলনে উপাচার্য আরও বলেন, সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশকৃত মোট ২ হাজার ৮৮ জন শিক্ষার্থীকে ডিগ্রি প্রদান করা হবে। এছাড়াও ৭ জন শিক্ষার্থীকে চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক ও ১২ জন শিক্ষার্থীকে প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান স্বর্ণপদক দেওয়া হবে।

রেজিস্ট্রার মো. ওবায়দুর রহমানের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য প্রফেসর ড. এম. মজিবুর রহমান, এহসানুল হক রিজন, প্রকৌশল অনুষদের ডিন প্রফেসর ইঞ্জি. মফজল আহমদ, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. ফসিউল আলম ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. সেলিম হোসাইন।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ১৮ নভেম্বর পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয় সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের অনুমোদন লাভ করে। ২০১৩ সালের ১৭ মে মাত্র ৬ জন শিক্ষক, ৪ জন কর্মকর্তা ও ১ জন কর্মচারি এবং ছয়টি পোগ্রামে ৬৯ জন শিক্ষার্থী নিয়ে এ বিশ্বিবদ্যালয় যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্ণ ও খণ্ডকালীন শিক্ষকের সংখ্যা ১৭০ জন, শিক্ষার্থীয় সংখ্যা প্রায় ৬ হাজার ৫শ’ জন, কর্মকর্তা-কর্মচারির সংখ্যা ১৯০ জন। বর্তমানে ৩টি অনুষদের অধীনে ১০ বিভাগের ১৩টি পোগ্রাম নিয়ে এর শিক্ষা কার্যক্রম চলছে।

জয়নিউজ/পার্থ নন্দী/শহীদ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...