বিশ্ববিদ্যালয় জ্ঞান সৃজনের জায়গা: চবি উপাচার্য

0

বিশ্ববিদ্যালয় শুধু পঠন পাঠনের জায়গা না, এটা জ্ঞান সৃজনের জায়গা বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। চবির কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ওরিয়েন্টেশন ও নবীনবরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব বলেন।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, তোমাদের সেই জ্ঞান সৃজন করে বিশ্ববিদ্যালয়ে আনুষঙ্গিক বিষয়গুলো বুঝতে হবে। তোমরা আমাদের দার্শনিক, আগামীর বাংলাদেশ তোমরাই। আজকে তোমাদের জয়ধ্বনি করার সময় এসে গেছে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের জারুলতলায় চবি কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ১৬ বিভাগ ও তিনটি ইন্সটিটিউটের প্রথম বর্ষে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ ও ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠান শুরু হয়। এতে প্রায় সহস্রাধিক নবীন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।

সকাল ১০টা ৩০ মিনিটের দিকে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। পরে উদ্বোধনী সঙ্গীত ও নৃত্যের মাধ্যমে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর অতিথিদের সম্মাননা স্মারক প্রদান এবং আলোচনা সভা (কথামালা) অনুষ্ঠিত হয়।

কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সেকান্দর চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার এবং অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট কবি ও সাংবাদিক আবুল মোমেন।

অতিথির বক্তব্যে আবুল মোমেন নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, মানুষের জীবনে এগিয়ে যাবার ২টি ডানা আছে। প্রতিযোগিতা ও সহযোগিতা দুটো হাত ধরাধরি করে চলে। আমরা সমাজে অসুস্থ প্রতিযোগিতায় পড়ে যাচ্ছি। সম্প্রীতির বাংলাদেশে সংঘাতের খবর পাচ্ছি। সহযোগিতার মনোভাব তৈরি হলে সামষ্টিক অগ্রগতি চিন্তা করতে পারবে। নিজের জন্য পেশা সৃষ্টি করে সহযোগিতার বীজ ভিতরে লালন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে জ্ঞান উৎপাদনের পরিবেশ তৈরি হবে ছাত্র-শিক্ষক যৌথ সম্পর্কের মাধ্যমে। জ্ঞান সীমাবদ্ধ বিষয় নয়। প্রতিদিন এটি নতুনভাবে সৃষ্টি হয়। এটি সৃষ্টি না হলে মানুষ মৌলিক চিন্তা ঘটাতে পারবে না। জ্ঞানের পথে ভয় নয়, নির্ভয়ে জ্ঞান চলে। আর সেই জ্ঞান দু’ভাবে আয়ত্বে আসে। পূর্ণাঙ্গ জানা ও আংশিক জানা। উচ্চপর্যায়ে জ্ঞান চর্চা কঠিন।

এসময় ছেলেদের হলজীবন ও হলের বিভিন্ন নিয়ম-কানুন নিয়ে সোহরাওয়ার্দী হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বশির আহাম্মদ, মেয়েদের হলের বিভিন্ন নিয়ম-কানুন নিয়ে শামসুন নাহার হলের প্রভোস্ট ড. লায়লা খালেদা আঁখি, বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা বিষয়ে প্রক্টর প্রফেসর মো. আলী আজগর চৌধুরী এবং ছাত্র-ছাত্রীদের বিভিন্ন সমস্যা ও পরামর্শ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী নির্দেশনা ও পরামর্শ কেন্দ্রের পরিচালক প্রফেসর ড. আহমদ সালাউদ্দিন বক্তব্য রাখেন।

জয়নিউজ/নবাব/শহীদ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...