ইলিশের উপস্থিতি ও বিক্রি বেড়েছে

0

দুইদিন পরেই পহেলা বৈশাখ। দিনটি যত এগিয়ে আসছে, ততোই উত্তাপ বাড়ছে রূপালি ইলিশের। পহেলা বৈশাখকে ঘিরে পান্তা ইলিশ ও ঘরে ঘরে ইলিশ খাওয়ার রীতিকে পুুঁজি করে ব্যবসায়ীরা ইলিশের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে বলে ক্রেতাদের অভিযোগ। এদিকে বাজারে মাছ-মাংসের দাম বাড়লেও, দাম বাড়েনি সবজির। গত দুই সপ্তাহ ধরে সবজির দাম একই রয়েছে।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) কাজীর দেউড়ি, চকবাজার, রিয়াজউদ্দিন বাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, ইলিশের উপস্থিতি ও বিক্রি দুটোই বেড়েছে। প্রতি কেজি ইলিশ ৩ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে অন্যান্য মাছের মধ্যে তেলাপিয়া ২০০ টাকায়, রুই ৩৫০ টাকায়, পাবদা ৬০০ টাকায়, টেংরা ৮০০ টাকায়, শিং ৬০০ টাকায়, বোয়াল ৫০০ টাকায় ও চিতল ৫০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ব্রয়লার মুরগি প্রতি কেজি ১৬৫ টাকায়, লেয়ার মুরগি ২২০ টাকায়, কক মুরগি ৩০০ টাকায় এবং প্রতি কেজি গরুর মাংস ৫৫০ টাকায়, খাসির মাংস ৮৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে সবজির দাম এ সপ্তাহেও অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতি কেজি বরবটি ৬০ টাকায়, পটল ৭০ টাকায়, করলা ৭০ টাকায়, পেঁপে ৩০ টাকায়, টমেটো ৪০ টাকায়, গাজর ৩০ টাকায়, ঢেঁড়স ৬০ টাকা, কচুর লতি ৫০ টাকায়, শসা ৪০ টাকায়, শিম ৬০ টাকায়, বাঁধাকপি ৭০ টাকায়, ফুলকপি ৫০ টাকায়, বেগুন ৪০ টাকায় ও মুলা ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

জয়নিউজ/আরসি
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...