‘সব সেবা প্রতিষ্ঠানকে এক ছাদের নিচে আনার পরিকল্পনা হচ্ছে’

0

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান বলেছেন, দেশের সর্বত্র ব্যাঙের ছাতার মত ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে বিভিন্ন সরকারি অফিসগুলো। এ কারণে সেবাগ্রহীতাদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী তাই জনগণকে আরো সহজভাবে সেবা দেওয়ার জন্য সব সেবা প্রতিষ্ঠানকে এক ছাদের নিচে নিয়ে আসার পরিকল্পনা করছেন।

রোববার (২১ এপ্রিল) দুপুর ১টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে স্থানীয় পর্যায়ে এসডিজি বাস্তবায়ন বিষয়ক দিনব্যাপী কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

মুখ্য সচিব বলেন, এসডিজির মূল প্রতিপাদ্য কাউকে পেছনে ফেলা নয়। এজন্য প্রধানমন্ত্রী সব অঞ্চলে সমান উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। দেশের গ্রামাঞ্চলেও শহরের সব সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দিতে ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ স্লোগানে ডিজিটাল গ্রাম গড়ার প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্ভাবিত এ উন্নয়ন মডেল সারা বিশ্বে প্রশংসিত হচ্ছে।

তিনি বলেন, উন্নয়নের এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে জাতিসংঘ ঘোষিত ২০৩০ এজেন্ডা তথা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) এবং নির্বাচনি ইশতেহার বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর শেখ হাসিনা সরকার।

মুখ্য সচিব বলেন, টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নে সর্বস্তরের স্থানীয় লোকজনকে সম্পৃক্ত করতে হবে।

চট্টগ্রাম দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখে উল্লেখ করে মুখ্য সচিব বলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান থাকাকালীন দেখেছি, চট্টগ্রাম দেশের অর্থনীতির চালিকাশক্তি। এখানকার সমুদ্র বন্দরসহ অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড দেশের অগ্রযাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এসডিজি অর্জনে চট্টগ্রাম বিভাগ অনেকদূর এগিয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান বলেন, টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে রোহিঙ্গা ইস্যু। নতুন ১১ লাখ রোহিঙ্গার পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনও এসডিজি বাস্তবায়নে অন্যতম সমস্যা।

কর্মশালার প্রেক্ষাপট বিশ্লেষণ করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের মহাপরিচালক মো. আশরাফ উদ্দিন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের গভর্নেন্স ইনোভেশন ইউনিটের সহযোগিতায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রশাসনের আয়োজনে এ কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সচিব ফয়েজ আহম্মদ, পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত সচিব) মো. আলকামা সিদ্দিকী, পযটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান আকতার জামান কবির, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আকতার হোসেন।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে কর্মশালায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী, জেলা প্রশাসক ইলিয়াস হোসেন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বিদায়ী চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা ও চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের প্রশাসক মো. জাফর আলম।

জয়নিউজ/কাউছার/জুলফিকার
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...