মুসল্লি সেজেও শেষরক্ষা হলো না

0

শবে বরাতের রাত। ঘড়িতে তখন রাত ১১টা। কোমরে আধুনিক বিদেশি পিস্তল। সঙ্গে  দুটি ম্যাগজিন ও তাজা ৭ রাউন্ড গুলিসহ কোনো একজনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন সাহাবুদ্দিন মাহমুদ প্রকাশ শিপু (৪৫) । উদ্দেশ্য আগন্তুকের কাছে অস্ত্র বিক্রি করা।

রোববার (২১ এপ্রিল) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হাটহাজারী থানা পুলিশ পৌর এলাকার ফটিকা গ্রামের কামালপাড়ার বায়তুস সালাহ জামে মসজিদ থেকে শিপুকে একটি বিদেশি পিস্তলসহ গ্রেপ্তার করে।

সাহাবুদ্দিন মাহমুদ ওরফে শিপু পূর্ব আলমপুর গ্রামের আলী হোসেন মাতব্বরের বাড়ির মৃত ইউনুচ মিয়ার ছেলে। উপজেলার ভূমি অফিসের বিপরীতে ফয়জিয়া মেডিসিন হাউজ নামে তার একটি গবাদিপশুর ওষুধের দোকান রয়েছে।

পুলিশ জানায়, শিপুকে ধরতে উপজেলা পরিষদ গেট এলাকায় অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে শিপু মুসল্লির বেশে কামালপাড়ায় বায়তুস সালাহ জামে মসজিদে প্রবেশ করে। তবুও তার শেষরক্ষা হলো না। মসজিদ থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে হাটহাজারী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মাসুম জয়নিউজকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একটি আধুনিক বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগজিন ও তাজা ৭ রাউন্ড গুলিসহ সাহাবুদ্দিন মাহমুদ শিপুকে  ফটিকা গ্রামের কামালপাড়ার একটি মসজিদ থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় হাটহাজারী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আনিছ আল মাহমুদ বাদি হয়ে অস্ত্র আইন একটি মামলা (নম্বর-২৪) দায়ের করেন ।

জয়নিউজ/পলাশ/আরসি

সরাসরি আপনার ডিভাইসে নিউজ আপডেট পান, এখনই সাবস্ক্রাইব করুন।

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...