আকাশের ওপর হামলায় গডফাদারদের গ্রেপ্তারের দাবি

0

দৈনিক আজাদীর ফটিকছড়ি প্রতিনিধি সাংবাদিক এম এস আকাশের ওপর হামলাকারীসহ তাদের গডফাদারদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে চট্টগ্রামরে সাংবাদিক নেতারা।

সোমবার (৬ মে) বিকালে নগরের প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গণে চট্টগ্রামের বিক্ষুব্ধ সাংবাদিক সমাজ আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান।

প্রতিবাদ সমাবেশে সাংবাদিক নেতারা বলেন, শুধু হামলাকারী দুর্বৃত্ত নয়, সাংবাদিক আকাশের ওপর হামলাকারীদের আশ্রয়দাতাদেরও খুঁজে বের করতে হবে। এ ঘটনার অন্তরালে যদি ফটিকছড়ির চিহ্নিত গডফাদারদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায় তাদেরকেও ছাড় না দেওয়ার দাবি জানানো হয়।

বক্তারা বলেন, আকাশ একজন সৎ ,সাহসী ও মেধাবী সাংবাদিক। জনপ্রতিনিধির পোশাকে এক শ্রেণীর লুটেরাগোষ্ঠী ফটিকছড়িতে সরকারি বরাদ্দ লুটপাট করছে।

সরকারি বালু মহাল থেকে বিনা ইজারায় বালু লুটপাট করছে। আকাশ তার লেখনির মাধ্যমে এসব দুর্নীতিবাজদের মুখোশ খুলে দেওয়ায় লুটেরাগোষ্ঠী সংঘবদ্ধ হয়ে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যার চেষ্টা চালায়।

এ ঘটনার পর ফটিকছড়ির সাংসদ হিসেবে সৈয়দ নজিবুল বশর এখন পর্যন্ত আকাশকে হাসপাতালে এক নজর দেখতে যাননি। নেননি তাঁর চিকিৎসার খোঁজখবর। উল্টো তাঁর আচরণ আকাশের ওপর হামলাকারীদের পক্ষে বলে প্রচার রয়েছে।

অন্যদিকে হামলাকারীরা আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃত উপজেলা চেয়ারম্যানের অনুগত বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। এতে করে প্রতিয়মান হয় যে হামলাকারীদের সঙ্গে উপজেলা চেয়ারম্যানের যোগসাজস রয়েছে।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, এক বছর আগে আকাশের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় দুটি মামলা করানো হয়। ঐ দুই মামলার বাদী ছিল জামায়াতপন্থি এক ঠিকাদার। মামলার এক বছর পর তার ওপর পরিকল্পিতভাবে হামলা করে এসব কথিত প্রতিনিধির লালিত সন্ত্রাসীরা।

বক্তারা বলেন, সাংবাদিকদের সঙ্গে বিরোধে জড়াবেন না। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে সাংবাদিকদেরও রক্ত ঝড়েছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিকবান্ধব একজন নেত্রী। তিনি সাংবাদিকদের কল্যাণে নানামুখী প্রকল্প গ্রহণ করেছেন। অথচ খোলস পাল্টানো এক শ্রেণীর জনপ্রতিনিধি সাংবাদিক সমাজকে রাষ্ট্রের মুখোমুখি করছে।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ পুলিশের উদ্দেশে বলেন, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিবেন না। আকাশের ওপর হামলাকারীরা যে দলেরই হোক তাদের গ্রেপ্তার করুন।

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি সাংবাদিক পরিষদের সদস্য সচিব ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সাবেক সদস্য মো. ফারুকের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএফইউজের সহসভাপতি রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামল, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, বিএফইউজে সদস্য আজহার মাহমুদ, একুশে পত্রিকার সম্পাদক আজাদ তালুকদার, সীতাকুণ্ড প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ফোরকান আবু, ধর্মপুর স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী পুনর্মিলনী পরিষদের সভাপতি মো. শাহজাহান চৌধুরী, সদস্য সচিব মো. লোকমানুল আলম, উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, সাংস্কৃতিক কর্মী সোমা মুৎসুদ্দি, ইসলামী ফ্রন্ট নেতা  অ্যাড. মোছাহেব উদ্দিন বখতেয়ার ও আওয়ামীলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী আবুল বশর।

জয়নিউজ/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...