উপমন্ত্রী নওফেলের কণ্ঠ নকল করে প্রতারণা

0

কখনো শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল, কখনো তার ছোট ভাই কিংবা কখনো মন্ত্রীর পিএস সেজে মোবাইল ফোনে কল দিতেন মো. ওসমান (২৬)। কণ্ঠ নকলে পারদর্শী ওসমানের কথা শুনে যে কেউই বিভ্রান্ত হতেন। এ সুযোগে প্রতারণার ফাঁদ পেতে টাকা হাতিয়ে নেয় ওসমান। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। ঠিকই ধরা পড়তে হয়েছে পুলিশের হাতে।

মঙ্গলবার (২১ মে) ভোররাতে ডবলমুরিং থানার ঝর্ণাপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে দুপুরে কেতোয়ালী থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে ওসমানকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি জানান চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মুহাম্মদ আবদুর রউফ।

তিনি জানান, ইমু, ম্যাসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপে উপমন্ত্রী নওফেলের ছবি দিয়ে আইডি খুলে প্রতারণা করে ওসমান অনেকের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। সে পুলিশকে জানিয়েছে, দীর্ঘ চার মাস ধরে অনেকের কাছে নওফেল সেজে টাকা দাবি করে আসছিল। সর্বশেষ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেত্রী শ্রাবণীকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কমিটিতে পদ দেওয়ার নামে ২ লাখ টাকা দাবি করে। এর আগে চট্টগ্রাম নগরের শ্রমিকলীগ নেতা মাহবুবুল হক চৌধুরী এটলির কাছ থেকে নওফেল সেজে ৫ লাখ টাকা দাবি করে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জয়নিউজকে বলেন, ওসমান কণ্ঠস্বর নকলে খুবই পারদর্শী। সে একাধারে উপমন্ত্রী মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, তার ছোট ভাই ও পিএসের কণ্ঠ নকল করতে পারে। তার কথা বলার ভঙ্গি এমন যে ফোন করলেই যে কেউ ভাববে সে উপমন্ত্রী নওফেল স্যার। নিজের মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করলেও সেই নম্বর দিয়ে খোলা ইমো অ্যাকাউন্টে সে নওফেল স্যারের ছবি জুড়ে দেয়। এভাবে সে লোকজনকে বিভ্রান্ত করতেও সক্ষম হয়েছে।

ওসমান খাগড়াছড়ি জেলার মানিকছড়ি এলাকার আবদুল ওয়াদুদের ছেলে।

জয়নিউজ/রুবেল/শহীদ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...