পাকিস্তানের রানটা পাহাড়ই মনে হচ্ছে ইংল্যান্ডের

0

প্রথম ম্যাচের বাজে হার যেন তাতিয়ে দিয়েছিল পাকিস্তানকে। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে এসেই ইংল্যান্ড বোলারদের বেধড়ক পিটুনি দিয়ে ৩৪৮ রান সংগ্রহ করেছে সরফরাজের দল।

শুধু তাই রাত ৯টা ৪০ মিনিটে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জয়ের গন্ধও পাচ্ছে পাকিস্তান। ২৩ ওভারে ইংল্যান্ড করেছে ১২৮ রান। আর এ রান করতেই প্যাভিলিয়নে ফিরেছে ৪ ব্যাটসম্যান। আউট হয়েছে জেসন রয় (৮), বেয়ারস্টো (৩২), মরগান (৯) ও স্টোকস (১৩)। ক্রিজে রয়েছেন হাফ সেঞ্চুরি করা জো রুট (৬০) এবং বাটলার (৪)।

সোমবার (৩ জুন) ট্রেন্ট ব্রিজে বিকাল সাড়ে তিনটায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতেছিল ইংলিশ দলপতি ইয়ান মরগান।
টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে বাবর, হাফিজ, সরফরাজের ফিফটিতে পাকিস্তান তুলেছে ৩৪৮ রান। এই রান করতে তারা হারিয়েছে ৮ উইকেট।

পাকিস্তানের হয়ে উদ্বোধনী জুটিতে ব্যাট করতে নামেন ফখর জামান আর ইমাম-উল-হক। ইনিংসের ১৫তম ওভারে বিদায় নেন ফখর জামান। মঈন আলির বলে স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে পড়ার আগে ৪০ বলে ছয়টি চারের সাহায্যে করেন ৩৬ রান। দলীয় ৮২ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় পাকিস্তান। দলীয় ১১১ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেটের পতন হয়। মঈন আলির বলে ক্রিস ওকসের হাতে বল তুলে দেওয়ার আগে পাকিস্তানের আরেক ওপেনার ইমাম উল হক ৫৮ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ৪৪ রান।

দলীয় ১৯৯ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেট হারায় পাকিস্তান। বিদায় নেন বাবর আজম। মঈন আলির তৃতীয় শিকারের আগে ৬৬ বলে চারটি চার আর একটি ছক্কায় করেন ৬৩ রান।

সিনিয়র ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ হাফিজ দলীয় ২৭৯ রানের মাথায় বিদায় নেন। মার্ক উডের বলে আউট হওয়ার আগে খেলেন ৮৪ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। হাফিজের ৬২ বলে সাজানো ইনিংসে ছিল আটটি চার আর দুটি ছক্কার মার। এরপর মার্ক উড ফিরিয়ে দেন ১৪ রান করা আসিফ আলিকে।

ইনিংসের ৪৮তম ওভারে ক্রিস ওকস বিদায় করেন পাকিস্তান দলপতি সরফরাজ আহমেদকে। ৪৪ বলে পাঁচটি বাউন্ডারিতে ৫৫ রান করেন সরফরাজ। একই ওভারে ওকসের বল তুলে মারতে গিয়ে বিদায় নেন ওয়াহাব রিয়াজ (৪)।
শেষ ওভারে ক্রিস ওকস তার তৃতীয় শিকার বানান ৮ রান করা শোয়েব মালিককে। শাদাব খান ১০, হাসান আলি ১০ রান করে অপরাজিত থাকেন। ক্রিস ওকস ও মঈন আলি তিনটি করে আর মার্ক উড দুটি উইকেট পান।

জয়নিউজ/পার্থ/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...