ইংল্যান্ডের ভাবনায় ৫ পেসার, টাইগারদের ভরসা স্পিনে

কার্ডিফ এমনিতেই পেস বান্ধব। এখানে ব্যাটসম্যানদের চেয়ে পেস বোলাররাই বেশি সুবিধা পেয়ে থাকে। তার ওপর বৃষ্টির কারণে আর্দ্র এবং ভেজা পরিবেশ। পেসারদের জন্য ভয়ঙ্কর সুবিধাজনক এক কন্ডিশন।

এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে চারজন পেসার নিয়েই খেলার পরিকল্পনা করছে ইংল্যান্ড। এছাড়া অলরাউন্ডার হিসেবে রয়েছেন বেন স্টোকস। লেগ স্পিনার আদিল রশিদকে বসিয়ে রেখে পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেটকেই খেলানোর পরিকল্পনা নিচ্ছে ইংলিশরা।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে উদ্বোধনী ম্যাচে ইংল্যান্ড একাদশে ছিলেন প্লাঙ্কেট। তবে পরের ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে তাকে বসিয়ে রেখে একাদশে খেলানো হয় মার্ক উডকে।

ইংল্যান্ড যখন স্পিনার বাদ দিয়ে একজন পেসার বাড়তি নেওয়ার কথা চিন্তা করছে দলে, তখন বাংলাদেশ চিন্তা করছে স্পিন শক্তি কিভাবে বাড়ানো যায়। পেসের পরিবর্তে স্পিন দিয়েই ইংল্যান্ডকে কাবু করার চিন্তা করছে বাংলাদেশ।

এছাড়া বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ হবে শুরুতে ব্রেকথ্রো আনা। ম্যাচ জিততে দলের টপ অর্ডারের ভালো করতে হবে। এছাড়া ডেথ ওভারে ভালো ব্যাটিং ও ভালো বোলিং ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিতে পারে।

ইংলিশ অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান আগেই জানিয়ে দিয়েছেন, এই ম্যাচে চারজন পেসারকে খেলানোর সম্ভাবনা রয়েছে। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) এখানে আমরা যে উইকেট দেখেছি, তাতে মনে হয়েছে আগে যেভাবে খেলতাম, তেমনই রয়েছে। এখানে হালকা সবুজ ঘাস থাকতে পারে।

আগের ম্যাচে ইংল্যান্ড দলে পেসার হিসেবে ছিলেন জোফরা আর্চার, মার্ক উড, ক্রিস ওকস, বেন স্টোকস । আজকের ম্যাচে পেসার লিয়াম প্লাঙ্কেট থাকলে ৫ পেসারকে সামলাতে হবে টাইগারদের।

কিন্তু সকাল থেকে বৃষ্টি না হয়নি কার্ডিফে। ম্যাচ শুরুর দুই ঘণ্টা আগে আকাশ পরিষ্কার হয়ে সূর্যের দেখা মেলার নির্ধারিত সময়- স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় (বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টা) টস করতে নামবেন মাশরাফি এবং ইয়ন মরগ্যান।

২০১১ বিশ্বকাপের পর সর্বশেষ ২০১৫ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ইংলিশদের হারিয়েছে টাইগাররা। রুবেল হোসেনের বলে জেমস অ্যান্ডারসনের বোল্ড এখনো চোখে ভাসে বাংলাদেশীদের। সেই বোল্ডেই বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গিয়েছিলো ইংল্যান্ডের। হয়তো সেই ক্ষত এখনো ভুলতে পারেনি ইংলিশরা। টাইগাররা সেই ম্যাচের পুনরাবৃত্তি করতে প্রস্তুত। অন্যদিকে ইংল্যান্ডের লক্ষ্য ঘরের মাঠে প্রতিশোধ নেওয়া।

জয়নিউজ/পলাশ

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...