রাউজানে ইভটিজিংয়ের অপরাধে শিক্ষার্থীর দণ্ড

0

রাউজানে ইভটিজিংয়ের অপরাধে একই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ফাজিল ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী নাজিম উদ্দিনকে (২৪) তিনমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার (৮ জুন) রাত ৮টায় তাকে কারাদণ্ড দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ।

এসময় দণ্ডপ্রাপ্ত নাজিম উদ্দিনকে চট্টগ্রাম জেলা কারাগারে পাঠানোর জন্য থানার ওসিকে নির্দেশ দেন তিনি।

জানা গেছে, উপজেলা সদরের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আলিম ক্লাসের মহিলা শিক্ষার্থীকে প্রতিনিয়ত উত্যক্ত করত নাজিম উদ্দিন। রমজান মাসের ১৫ দিন আগেওই শিক্ষার্থী এ ব্যাপারে অভিযোগ করলে নাজিম উদ্দিনকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়।
নাজিম উদ্দিনের পিতা মো. হাসান তার ছেলে আর কখনো এ ধরনের অপকর্মে লিপ্ত হবে না বলে মুচলেকা দিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানের কাছ থেকে নাজিম উদ্দিনকে ছাড়িয়ে নেন। পরে রমজান মাসে নাজিম উদ্দিন ওই শিক্ষার্থীর মায়ের মোবাইলে ফোন দিয়ে হুমকি দেন বলে ওই শিক্ষার্থী অভিযোগ করে।

ইতোমধ্যে ইভটিজিংয়ের শিকার ওই শিক্ষার্থী রাউজানের সাংসদ পুত্র ফারাজ করিম চৌধুরীর পরিচালিত সেন্ট্রাল বয়েজ অব রাউজানের হেল্প ডেক্স নম্বরে ফোন দিয়ে সহায়তা পাওয়ার আবেদন করে। সেন্ট্রাল বয়েজ অব রাউজানের সভাপতি সাইদুল ইসলামসহ কর্মকর্তারা বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির বিষয়টি জানার পর ৮ জুন দিবাগত রাত ৮ টায় শিক্ষার্থী নাজিম উদ্দিনকে তার বাংলোতে নিয়ে আসেন, পরে মহিলা শিক্ষার্থীকেও ডেকে আনা হয়।

এসময় উভয়ের জবানবন্দি শোনার পর শিক্ষার্থী নাজিম উদ্দিনকে তিনমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জোনায়েদ কবির সোহাগ বলেন, শিক্ষার্থী নাজিম উদ্দিন কর্তৃক ওই শিক্ষার্থীকে ইভটিজিং করার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে তিনমাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

জয়নিউজ/শফিউল/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...