বাংলাদেশের মতো নারীর উন্নয়ন পৃথিবীর কম দেশেই হয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

0

তথ্যমন্ত্রী ডা. হাসান মাহমুদ বলেছেন, বাংলাদেশে নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়ন যেভাবে হয়েছে পৃথিবীর কম দেশেই এভাবে হয়েছে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রমের আওতায় বহিরাঙ্গন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

রোববার (৯ জুন) বিকালে নগরের পতেঙ্গা বিচে বাংলাদেশ বেতার এ আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর যে গড় আয়ু ছিল ৪৪ বছর, এখন ৭৩ বছর। শুধু প্রধানমন্ত্রীর চেষ্টায় তা সম্ভব হয়েছে। শিশুদের মনন, মূল্যবোধ, দেশাত্মবোধ তৈরিতে আমাদের অভিভাবকদের আরো কষ্ট করতে হবে।

তিনি বলেন, সব মানুষই স্বপ্ন দেখে, কিন্তু সবার স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয় না। তাদেরটাই বাস্তবায়ন হয় যারা সেই লক্ষে পরিশ্রম করেন। সেই ধরণের প্রজন্ম তৈরি করতে হবে যা আগামীর বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবে।

অনুষ্ঠানে মূখ্য আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

তিনি বলেন, দেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। আজকের শিশুই আগামী দিনের সম্পদ। তাই তাদের যত্ন নিতে হবে। দেশপ্রেম আর মূল্যবোধের শিক্ষায় শিশুদের গড়ে তুলতে হবে।

তিনি আরও বলেন, দেশের জনগণের প্রায় অর্ধেক নারী। নারী কিন্ত অবলা নয়। নারীরা আজ সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর একক প্রচেষ্টায় তা সফল হয়েছে।

নগরপিতা বলেন, পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গড় আয়ুর মানুষ এখন বাংলাদেশে। যা সম্ভব হয়েছে বর্তমান সরকারের চেষ্টায়। নারী ও শিশুরা যাতে সর্বোচ্চ পুষ্টিগুণে বেড়ে উঠে সেই লক্ষ্যে এই প্রকল্প গড়ে তোলা হয়েছে।

বিশেষ অতিথি চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ বলেন, আমাদের দেশের মানুষের গড় আয়ু বেড়েছে। মাতৃ ও শিশুমৃত্যু কমেছে। প্রধানমন্ত্রীর সঠিক নেতৃত্বেই তা সম্ভব হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জানেন দেশকে এগিয়ে নিতে পুরুষের পাশাপাশি নারীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। তাই নারীদেরকে তিনি মর্যাদার আসনে বসিয়েছেন।

বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক নারায়ণ চন্দ্র শীলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, বাংলাদেশ বেতারের আঞ্চলিক পরিচালক এস এম আবুল হাসেন ও তথ্যমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আজাহারুল হক।

জয়নিউজ/পার্থ/বিশু
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...