শুধু প্রিয় বাবুদের প্রিয় হতে পারলাম না: তথ্যমন্ত্রী

0

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি সারা বিশ্ব স্বীকার করে নিয়েছে। সবাই প্রশংসা করে। শুধু একটি পক্ষ প্রশংসা করতে পারে না। তারা কোনো উন্নয়ন দেখে না। এবার গণমুখী বাজেট হয়েছে। তবু সিপিডির প্রিয় (দেবপ্রিয়) বাবুদের প্রিয় হতে পারলাম না। সিপিডিতে আদৌ কোনো গবেষণা হয় কি-না তা নিয়ে আমার সন্দেহ হয়।

শনিবার (১৫ জুন) বিকেল ৫টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস উপলক্ষে ফাতেমা বেগম রেড ক্রিসেন্ট ব্লাড সেন্টারের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্য আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছি। ৪০ লাখ টন খাদ্য ঘাটতি নিয়ে শুরু করেছিলাম আর এখন খাদ্য উদ্বৃত্ত থাকছে। এগুলো কি আমাদের সফলতা নয়? ১০ বছর ধরে ভুল বাজেট দেওয়ার কারণে কি দারিদ্র ২০ শতাংশে নেমে এসেছে? ভুল বাজেট দেওয়ার কারণে কি মাথাপিছু আয় ৬০০ ডলার থেকে ১৯০৯ ডলারে হয়েছে? মানব উন্নয়ন সূচকে এগিয়ে যাওয়াও কি ভুল বাজেট দেওয়ার কারণে? বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগকে (সিপিডি) উদ্দেশ করে তিনি এসব প্রশ্ন করেন।

তিনি আরো বলেন, বাজেটে সব খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে। তারা এগুলো দেখেন না। এর উত্তর দেবেন, না হলে গৎবাধা সমালোচনা করবেন না। গবেষণার নামে যারা এসব করেন তারা এক-এগারোর কুশীলব।

মন্ত্রী বলেন, সরকারি হাসপাতালগুলো পরিষ্কার রাখতে হবে। যাতে কাউকে নাকে রুমাল দিতে না হয়। চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যসেবা উন্নত হলে দেশের প্রায় তিন কোটি মানুষ সুবিধা পাবে। চমেক হাসপাতাল ৪০০০ বেডে উন্নীত হবে।

বাংলাদেশ বদলে গেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, এখন ছেড়া কাপড় পড়া লোক দেখা যায় না। ১০ বছর আগের বাংলাদেশ আর নেই। এখন সবাই কাপড় পরে বাইরে যায়। খালি পায়ে কেউ নেই। গণমুখী নীতির কারণেই তা সম্ভব হয়েছে। স্বাস্থ্য সূচক, মানব উন্নয়ন ও সামাজিক উন্নয়ন সূচকে বাংলাদেশ ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে। সব খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে। তারা এগুলো দেখেন না।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. শেখ শফিউল আজমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান এম এ সালাম। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সেক্রেটারি নুরুল আনোয়ার চৌধুরী বাহার ও আব্দুল জব্বার।

জয়নিউজ/পিপিএন/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...