‘সুপার ডাইক সড়ক নির্মিত হলে চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা কমবে’

0

মিরসরাই থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত সুপার ডাইক সড়কটি নির্মিত হলে চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা অনেকাংশে কমে যাবে বলে জানিয়েছেন পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম।

বুধবার (১৯ জুন) দুপুরে সীতাকুণ্ডে এসব কথা জানান তিনি।

তিনি আরও জানান, মিরসরাই-কক্সবাজার পর্যন্ত ৪৩০ কিলোমিটার সাগরপাড় দিয়ে নির্মিত সুপার ডাইক সড়কের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। এ সড়কে যুক্ত হবে সন্দ্বীপ ও কুতুবদিয়া।

উপমন্ত্রী জানান, সড়কটির অধিকাংশ কাজ সম্পন্ন হলেও সীতাকুণ্ড ও মিরসরাই অংশের বাকি থাকা ৩৪ কিলোমিটার সড়কের নির্মাণকাজও ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে।

এসময় তিনি চট্টগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের বিভিন্ন অবকাঠামো সমূহের ভাঙন প্রতিরোধ, নিস্কাশন এবং সেচ ব্যবস্থা উন্নয়নের জন্য পুনর্বাসন শীর্ষক প্রকল্পের সীতাকুণ্ড অংশের চলমান কাজ পরিদর্শন করেন।

পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ৩০ জুনের মধ্যে বাঁশবাড়িয়া সাগর উপকূলে ৪১ কোটি টাকা ব্যয়ে সোয়া দুই কিলোমিটার উপকূলে ব্লক বসানোর কাজ শেষ হবে বলেও জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় অতিরিক্ত সচিব মো. রোকন উদ-দৌলা, অতিরিক্ত মহাপরিচালক এ টি এম শামশুল করিম, প্রধান প্রকৌশলী মীর মোশারফ হোসেন, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শিবেন্দু খাস্তগীর, নির্বাহী প্রকৌশলী খ ম জুলফিকার তারেক, সীতাকুণ্ড উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শম্পা রাণী সাহা, সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান শওকত আলী জাহাঙ্গীর, রেহান উদ্দিন, তাজুল ইসলাম নিজামী ও নাজিম উদ্দিনসহ আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

জয়নিউজ/সেকান্দর/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...