প্রাণহানি এড়াতে সিদ্ধান্ত পাল্টান ট্রাম্প

0

মার্কিন ড্রোন ভূপাতিত করার ঘটনায় ইরানে হামলার অনুমতিতে সই করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে সেখানে দেড়শ’র মত লোকের প্রাণহানি হতে পারে- এমন কথা শোনার পর হামলার পরিকল্পনা থেকে পিছিয়ে আসেন তিনি। হামলার বিষয়ে এমনই তথ্য দিয়েছেন ট্রাম্প নিজেই।

ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়ে ১৩ কোটি ডলারের মার্কিন ড্রোন নামানোর পাল্টা জবাব দিতে ইরানের ওপর সামরিক হামলা চালানোর পরিকল্পনা করে মার্কিন প্রশাসন। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) শেষ রাতে হামলার সব প্রস্তুতিও সম্পন্ন হয়। হামলার কারণে ইরানের সেনাবাহিনী বা সাধারণ মানুষের ক্ষতি এড়াতে বেছে নেওয়া হয় এই সময়টা। লক্ষ্য ছিল ক্ষেপণাস্ত্রের ব্যাটারি এবং কিছু রাডার। সব বিমান এবং জাহাজ যখন কোমর বেঁধে তৈরি, ঠিক তার আগে হামলার পরিকল্পনা থেকে পিছিয়ে আসা হয়।

হামলার পরিকল্পনা থেকে সরে আসার বিষয়ে টুইটবার্তায় ট্রাম্প জানান, হামলা চালানোর মাত্র দশ মিনিট আগে সিদ্ধান্ত বদল করেন তিনি। কারণ এক জেনারেল তাকে জানান, হামলায় অন্তত ১৫০ মানুষ প্রাণ হারাতে পারে। তা শোনার পরেই সিদ্ধান্ত পাল্টান প্রেসিডেন্ট।

টুইটে ট্রাম্প লিখেছেন, ‘কোনো তাড়া নেই। নিষেধাজ্ঞার কামড় থাকছেই, কাল রাত থেকে আরও নিষেধাজ্ঞা চাপানো হচ্ছে। আমেরিকার বিরুদ্ধে ইরান কোনোদিন পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগ করতে পারবে না, গোটা বিশ্বের বিরুদ্ধে তো নয়ই।’

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...