পুলিশ কর্মকর্তা শম্পা উইমেন অ্যাওয়ার্ডের জন্য মনোনীত

0

সেবা ও সাহকিতায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় সীতাকুণ্ড সার্কেলের এডিশনাল এসপি শম্পা রানী সাহা উইমেন অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ এর জন্য মনোনীত হয়েছেন।

পুলিশ সদর দপ্তরের পক্ষ থেকে এ পুরস্কারের জন্য শম্পাসহ মোট ১০ জন কর্মকর্তাকে মনোনীত করা হয়েছে। আগামী ২৬ জুন তার হাতে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

ইতিপূর্বে পিপিএম ও আইজিপি ব্যাজ পদকপ্রাপ্ত এডিশনাল এসপি শম্পা রানী নতুন করে আরেকটি পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়ে বাংলাদেশ পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ পুলিশ প্রতিবছর আন্তর্জাতিক নারী দিবসে সেবা ও সাহসিকতায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা নারী পুলিশ সদস্যদের পুরস্কৃত করে থাকে। সেই ধারাবাহিকতায় এবারও ১০ জন কর্মকর্তাকে এই পদক প্রদান করা হচ্ছে।

এই ১০ জনের মধ্যে মেডেল অব কারেজ ক্যাটাগরিতে সীতাকুণ্ড সার্কেলের এডিশনাল এসপি শম্পা রানী সাহাও মনোনীত হয়েছেন।

বুধবার রাতে পুলিশ সদর দপ্তর থেকে প্রেরিত এক চিঠিতে তাকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। আগামী ২৬ জুন চট্টগ্রামের ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে তাকে এই পুরস্কার তুলে দেওয়ার কথা রয়েছে।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি মো. দেলওয়ার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, এডিশনাল এসপি শম্পা রানী সাহা জঙ্গি দমন, ডাকাতদের বিরুদ্ধে অভিযানে ঝুঁকি নিয়ে ছুটে গেছেন। এসব কারণে আগেও পিপিএম ও আইজিপি পদক অর্জন করেছিলেন আর এবার অর্জন করেছেন উইমেন অ্যাওয়ার্ড।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শম্পা রানী জয়নিউজকে বলেন, আমি এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত হওয়ায় বাংলাদেশ পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এর আগেও আমার কাজের স্বীকৃতি পেয়েছিলাম।

তিনি বলেন, এ ধরনের পুরস্কার কাজের প্রতি দায়িত্ববোধ আরো বাড়িয়ে দেয়, অনুপ্রেরণা দেয়। আমিও অনুপ্রাণিত হয়েছি। এখন থেকে আরো ভালো কাজ করে কর্তৃপক্ষের বিশ্বাসের মর্যাদা রক্ষা করব।

জয়নিউজ/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...