দুই দেশের তিন নন্দিতকে নিয়ে ‘দেবতার গ্রাস’

0

বিখ্যাত আমেরিকান নাটক ‘ইনহেরিট দ্য উইন্ড’ অবলম্বনে কলকাতার পরিচালক শৈবাল মিত্র নির্মাণ করছেন চলচ্চিত্র ‘দেবতার গ্রাস’। এর চিত্রনাট্যও লিখেছেন তিনি।

ভারতের নন্দিত দুই অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও নাসিরুদ্দিন শাহ আর বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মূকাভিনেতা পার্থপ্রতিম মজুমদার একসঙ্গে অভিনয় করছেন এই চলচ্চিত্রে। নির্মাতা জানান, সাম্প্রদায়িকতা, অসহিষ্ণুতা এবং ধর্মীয় গোঁড়ামির প্রতিবাদ এর উপজীব্য।

শৈবাল মিত্র বলেন, বাংলা, হিন্দি ও ইংরেজি ভাষায় নির্মিত হচ্ছে ছবিটি। সাঁওতাল ভাষারও বহু কথোপকথন থাকবে। পশ্চিমবঙ্গে মুক্তির পর ছবিটি বাংলাদেশেও দেখানোর উদ্যোগ নেওয়া হবে।

পরিচালক জানান, নাটকটি পড়েই স্থির করে ফেলি ছবিটি বানাবোই। মাথায় ঘুরতে থাকে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও নাসিরুদ্দিন শাহের নাম। ছবির অন্যতম চরিত্র ধর্মযাজকের ভূমিকায় মাথায় আসে বন্ধু মূকাভিনেতা পার্থপ্রতিম মজুমদারের নাম। যোগাযোগ হয় এই তিন শিল্পীর সঙ্গে। মুম্বাই থেকে ছুটে আসেন নাসিরুদ্দিন শাহ, প্যারিস থেকে পার্থপ্রতিম মজুমদার। ঘরের মানুষ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় আমাদের পাশে সবসময় মহীরুহের মতো রয়েছেন। এভাবেই কাজটার শুরু।

পশ্চিমবঙ্গের খ্রিষ্টান অধ্যুষিত হিল্লোলগঞ্জের একটি ঘটনাকে ঘিরে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হচ্ছে। চার্চের ধর্মযাজক প্যাস্টর হেরম্বচন্দ্র মালের চরিত্রে অভিনয় করেছেন পার্থপ্রতিম মজুমদার। দুই আইনজীবীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও নাসিরুদ্দিন শাহ।

এতে আরও অভিনয় করছেন অনসূয়া মজুমদার, শুভ্রজিৎ দত্ত, অমৃতা চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ। সংগীত পরিচালনা করছেন তেজেন্দ্র নারায়ণ মজুমদার। এখন চলছে সম্পাদনার কাছ। এটি মুক্তি পাচ্ছে চলতি বছরের শেষের দিকে।

একুশে পদকপ্রাপ্ত মূকাভিনেতা পার্থপ্রতিম মজুমদার ২০১১ সালে ফরাসি সাংস্কৃতিক অঙ্গনের সেরা সম্মান ‘নাইট’ উপাধি লাভ করেন।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...