পুনঃতফসিল চেয়েছে ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটি, বিএনপি কার্যালয়ে ভাংচুর

0

বয়সসীমা তুলে দিয়ে পুনঃতফসিল না হলে কাউন্সিল হতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির সহ সভাপতি ইখতিয়ার রহমান কবির। মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি চলাকালে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, আগামীকালের (বুধবার) মধ্যে দাবি আদায় না হলে পরেরদিন অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো ঘটনার জন্য সিন্ডিকেট দায়ী থাকবে। আমরা ঘোষিত তফসিল বাতিল করে নতুন তফসিলের দাবি জানাচ্ছি।

এর আগে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ভাংচুর করে ছাত্রদলের একটি পক্ষ।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা কার্যালয়ে ঢুকতে গিয়ে বাধা পেয়ে এই ভাংচুর চালায়। তারা কার্যালয়ের টেবিল ও সিসি ক্যামেরা ভাংচুর করে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়।কার্যালয়ের সামনে একটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সংগঠনের কাউন্সিলকে স্বাগত জানিয়ে দুপুর ১২টার দিকে ছাত্রদলের নিয়মিতরা কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে স্লোগান দিচ্ছিল। সোয়া ১২টার দিকে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার ও বয়সসীমা তুলে দিয়ে নিয়মিত কমিটির দাবিতে আন্দোলন করতে থাকা সংগঠনটির বেশ কিছু নেতাকর্মী মিছিল নিয়ে নিয়মিতদের ধাওয়া দেয়। তারা বিএনপি কার্যালয়ের ভেতরে ঢুকে পড়ে। পরে বহিষ্কৃত নেতাকর্মীরা সেখানে প্রবেশ করতে চায়।

তবে বিলুপ্ত কমিটির সহ সভাপতি বলেন, ভেতরে যারা আছেন তারাই চেয়ার, টেবিল, সিসি ক্যামেরা এগুলো ভেঙেছে। আমরা যখন ভেতরে প্রবেশ করতে যাই, তখন ভেতরে যারা ছিল তারা কাপ, পিরিচ ছুঁড়ে মেরেছে। এতে আমাদের একজন আহত হয়েছেন।

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, দলের একটা সিদ্ধান্ত আসছে। আশা করি, সবাই এটা বিবেচনা করবে।

এদিকে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের প্রধান ফটকে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের অবস্থানের ফলে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবুসহ শতাধিক নেতাকর্মী অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...