নগর বিএনপির ৫২ নেতা-কর্মী কারাগারে

0

নাশকতার অভিযোগে করা ‘গায়েবি’ মামলায় নগর বিএনপির ৫২ নেতা-কর্মীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২৬ জুন) বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম মো. আল ইমরান খান শুনানি শেষে এই আদেশ দেন।

কারাগারে পাঠানো আসামিদের সবাই নগরের পতেঙ্গা থানা বিএনপির নেতা-কর্মী। তাদের মধ্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহসভাপতি মো. মিয়া ভোলা, নগর যুবদলের সহসভাপতি মো. ইকবাল, পতেঙ্গা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. শাহাবুদ্দিন, পতেঙ্গা ৪১ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মো. ইলিয়াছও রয়েছেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর মাসে নাশকতার অভিযোগে পুলিশের নগরের পতেঙ্গা থানায় করা ১০ মামলায় হাইকোর্ট থেকে জামিন নেন ৫৭ আসামি। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তারা নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন।

বিএনপির নেতা-কর্মীদের আইনজীবী নাজিম উদ্দিন চৌধুরী শুনানিতে আদালতকে বলেন, আসামিরা সবাই হাইকোর্ট থেকে জামিনে ছিলেন। এরা কেউ ভাঙচুর, ককটেল বিস্ফোরণ কিংবা নাশকতার সঙ্গে জড়িত নন। যে ১০টি মামলায় তাদের আসামি করা হয়েছে এগুলো সম্পূর্ণ গায়েবি মামলা। ওই ধরনের কোনো ঘটনাই ঘটেনি। শুধু বিএনপির রাজনীতি করার কারণে তারা মামলার আসামি হয়েছেন।

নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি অনেক সাধারণ মানুষও গায়েবি এসব মামলার আসামি। তাদের জামিন মঞ্জুর করা হোক। জামিনে থাকলে তারা কোনো ধরনের অপরাধে জড়াবেন না। এখন সেই পরিস্থিতিও নেই।

এসময় রাষ্ট্রপক্ষ জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, এরা সবাই ভাঙচুর ও ককটেল বিস্ফোরণ মামলার আসামি। জামিনে থাকলে পরিস্থিতির আবারও অবনতি ঘটাতে পারেন।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ জয়নিউজকে বলেন, উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত অসুস্থ ও বয়স্ক হওয়ায় সাতজনের জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। এছাড়া বাকি ৫২ জনকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে সন্ধ্যায় তাদের চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

জয়নিউজ/রিফাত/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...