সমাজ কোথায় যাচ্ছে!

0

বরগুনা শহরের কলেজ রোড এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, সারাদেশের সবাই এই ঘটনায় মর্মাহত। সমাজ কোথায় যাচ্ছে!

বরগুনায় স্ত্রীর সামনে স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার এই ঘটনায় গণমাধ্যমে আসা খবরে আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস। এরপর আদালত বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) এই মন্তব্য করেন। একইসঙ্গে এ ঘটনায় মামলা হয়েছে কি-না বা কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তা বৃহস্পতিবার বেলা দুইটায় আদালতকে জানাতে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে বলা হয়েছে।

আদালত বলেন, প্রকাশ্য রাস্তায় মানুষটাকে মারল। একজন ছাড়া কেউ এগিয়ে আসল না। জনগণকে আপনি কী করবেন? বাংলাদেশের পরিস্থিতি এমন ছিল না। ভিডিও করল সবাই, কিন্তু কেউ এগিয়ে আসল না। এটি জনগণের ব্যর্থতা। তাই এই সামাজিক সচেতনতা তৈরি করবে কে? দাঁড়িয়ে দেখেছে, অথচ প্রতিবাদ করছে না। পাঁচজন মানুষ অন্তত এগিয়ে আসলে হয়ত তারা (দুর্বৃত্তরা) সাহস পেত না। হয়ত তারা ক্ষমতাবান, হয়তো মানুষ ভয়ে এগিয়ে আসেনি।

এসময় আদালত মামলা হয়েছে কি-না জানতে চান।

উপস্থিত এক আইনজীবী বলেন, নিহত রিফাতের বাবা ১২ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত পাঁচ থেকে ছয়জনকে আসামি করে বরগুনা সদর থানায় হত্যা মামলা করেছেন। এরপর আদালত ডেপুটি অ্যাটর্নি এবিএম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশারকে এ তথ্য বেলা দুইটায় আদালতকে জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, বুধবার (২৬ জুন) বরগুনার কলেজ সড়কের ক্যালিক্স কিন্ডারগার্টেনের সামনে দিনদুপুরে স্ত্রী আয়েশা আক্তারের সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এই হামলার ভিডিওচিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...