লালখানবাজারে সংঘর্ষের ঘটনায় ২৭ জন কারাগারে

0

নগরের লালখানবাজারে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের মামলায় ২৭ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু সালেম মো. নোমান এই আদেশ দিয়েছেন।

আসামিরা হলেন আরিফুল হানিফ, তৈয়ব, কাদের, ডিস সালাহউদ্দিন, তাহের, শামীম, সবুজ মিয়াজী, শাহীন, সুমন, শাহজাহান, আমজাদ হোসেন, আলী, শওকত হোসেন, মহিন, মোক্তার হোসেন, কাউছার, মো. হোসেন সেলিম, শরিফ, মাসুদ রানা, ইব্রাহিম, দ্বীন ইসলাম, তাজউদ্দিন, মো. শরিফ, সুরুজ, মঙ্গল, আলমগীর ও শওকত।

নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ জয়নিউজকে বলেন, মামলার এজাহারভুক্ত ২৭ আসামি আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেছিলেন। আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী মো. মহিউদ্দিন এনাম জয়নিউজকে বলেন, গত ১ জুলাই খুলশী থানায় দণ্ডবিধির ১৪৩, ৩২৩, ৩২৬, ৩০৭, ৩৪২, ৩৪৮, ৪২৭ ও ৫০৬ ধারায় দায়ের হওয়া একটি মামলায় ৪১ জনকে আসামি করা হয়। এরমধ্যে ২৭ জন আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন।

মো. মহিউদ্দিন এনাম বলেন, রাজনৈতিক কারণে অভিযুক্তদের উক্ত মামলায় আসামি করা হয়েছে এবং বেশ কয়েকজন আসামির বিরুদ্ধে এজাহারে কোনো অভিযোগ বর্ণনা করা হয়নি। এসব বিষয় তুলে ধরা হয় জামিন আবেদনের শুনানিতে। শুনানি শেষে আদালত জামিন নাকচ করে দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (২৮ জুন) রাতে ও পরদিন শনিবার বিকেলে লালখানবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দিদারুল আলম মাসুম এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবুল হাসনাত মো. বেলালের অনুসারীদের মধ্যে দু’দফা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জয়নিউজ/আরডি/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...