কে হচ্ছেন পরবর্তী উপসচিব?

0

চট্টগ্রাম ওয়াসায় ১ উপসচিব পদে প্রার্থী ৪ জন। যে যার অবস্থান থেকেই চান এই পদে আসীন হতে। জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতির আইন থাকলেও এবার তা মানা হচ্ছে না। কর্মকর্তাদের মতে, জ্যেষ্ঠতা ছাড়াও এবার দক্ষতাকে প্রাধান্য দিয়েই দেওয়া হবে এ পদোন্নতি।

সচিবালয়ের উপসচিব পদের কর্মকর্তা ওয়াসার নিজেদের নিয়োগকৃত কর্মকর্তা। এর উপরের পদে যারা আছেন তারা সবাই প্রেষণে (বিসিএস কর্মকর্তা) ওয়াসায় নিয়োগকৃত। সঙ্গতকারণে তাই এ পদের গুরুত্ব অনেক।

বর্তমানে উপসচিব পদে কর্মরত আছেন জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী। চলতি মাসের ১৪ তারিখ তিনি অবসরজনিত ছুটিতে যাচ্ছেন। গুরুত্বপূর্ণ এই পদের জন্য দক্ষতাসম্পন্ন কোনো কর্মকর্তা পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানা গেছে।

অন্যান্য ওয়াসার নিয়োগ বিধিমতে সহকারী সচিবরা পদোন্নতি পেয়ে উপসচিব হলেও, চট্টগ্রাম ওয়াসা তার ব্যতিক্রম। অভিযোগ রয়েছে, বর্তমান উপসচিব জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী সহকারী সচিব থেকে উপসচিব পদে পদোন্নতির পরেই বিধি সংশোধন করে উপসচিব পদের জন্য সহকারী সচিব, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা, জনসংযোগ কর্মকর্তা, উন্নয়ন কর্মকর্তাদের উপসচিব পদের জন্য যোগ্য বলে নিয়োগবিধিতে সংযুক্ত করেন।

তারই ধারাবাহিকতায় উপসচিব পদের জন্য জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে এগিয়ে আছেন ওয়াসার সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. আনোয়ারুল আজিম। ১৯৯৭ সালের ১৭ এপ্রিল তিনি ওয়াসায় যোগদান করেন। অপরজন ওয়াসার সহকারী প্রধান উন্নয়ন কর্মকর্তা এসএম বদরুদ্দোজা ৬ এপ্রিল ১৯৯৮ ওয়াসায় যোগদান করেন। বর্তমান কর্মরত সহকারী সচিব মো. নাজিম উদ্দিন ২০০৪ সালের ২৬ এপ্রিল যোগদান করেন। সর্বশেষ বর্তমান জনসংযোগ কর্মকর্তা (পিআরও) নূরজাহান শীলা ওয়াসাতে যোগ দেন ২০০৫ সালের ২৭ অক্টোবর।

জানা যায়, জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতিতে সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. আনোয়ারুল আজিম আইনগতভাবে উপসচিব পদের জন্য যোগ্য বিবেচিত হলেও, তাকে নিয়ে আছে নানা রটনা। ওয়াসার অনেক সম্পত্তি বেদখলের পেছনে তার হাত রয়েছে বলে জনশ্রুতি রয়েছে। এছাড়া কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সরকারি বাসস্থানসহ সম্পত্তিসংক্রান্ত সুবিধা পেতে তিনি অনৈতিকতার আশ্রয় নেন বলে অভিযোগ রয়েছে। অপরদিকে সহকারী প্রধান উন্নয়ন কর্মকর্তা এসএম বদরুদ্দোজা রাজস্ব শাখায় থাকাকালে নানা আর্থিক অনিয়মে জড়িত থাকার অভিযোগে উন্নয়ন শাখায় বদলি হন। বর্তমান সহকারী সচিব মো. নাজিম উদ্দিনের ব্যাপারে আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ না থাকলেও, তার রয়েছে প্রশাসনিক দক্ষতার ঘাটতি। জনসংযোগ কর্মকর্তা (পিআরও) নূরজাহান শীলার ব্যাপারে কোনো অভিযোগ না থাকলেও, বিধি মোতাবেক তিনি থাকছেন সবার শেষে।

কে হচ্ছেন পরবর্তী উপসচিব জানতে চাইলে ওয়াসার সচিব মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন জয়নিউজকে বলেন, এখনো এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়নি। কয়েকদিনের মধ্যে তা জানতে পারবেন।

উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক (প্রশাসন) গোলাম হোসেন জয়নিউজকে বলেন, উপসচিবের ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি। এমডি স্যার ঢাকা থেকে এলেই সিদ্ধান্ত হবে।

তিনি জানান, কর্তৃপক্ষ উপসচিব পদে এমন একজনকে চাচ্ছেন, যার আছে প্রশাসন পরিচালনায় দক্ষতা-অভিজ্ঞতা। এবং যার বিরুদ্ধে নেই কোনো অনিয়মের অভিযোগ।

এই প্রতিবেদকের কাছে তথ্য ছিল সচিবালয় থেকে সহকারী সচিব মো. নাজিম উদ্দিনের নাম উপ সচিবপদের জন্য সুপারিশ করে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে উপ ব্যবস্থাপনা পরিচালক (প্রশাসন) গোলাম হোসেন বলেন, সেটি ডাউন করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, যদি যোগ্য কাউকে আপাতত পাওয়া না যায়, তবে সচিবই এই দায়িত্ব পালন করবেন। কোনো অযোগ্য লোককে উপসচিব পদে আপাতত দায়িত্ব দিলেও, সুপার সিলেকশন বোর্ড তাতে বৈধতা দেবে না।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...