অভিযুক্ত ৪ ছাত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিলো ইউএসটিসি

0

ইউএসটিসির ইংরেজি বিভাগের উপদেষ্টা অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদের গায়ে কেরোসিন দেওয়ার ঘটনায় অভিযুক্ত চার ছাত্রের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরমধ্যে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার মাহমুদুল হাসানের ছাত্রত্ব বাতিল করে তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। অন্য তিন ছাত্রকে একবছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য দেন ইউএসটিসির প্রক্টর নূর ই আলম সিদ্দিকী।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, কেরোসিন দেওয়ার ঘটনায় দ্রুত সময়ের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা নিয়ে অধ্যাপক মাসুদ মাহমুদকে উদ্ধার করে। ঘটনাস্থল থেকেই একজনকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এরপর বিশ্ববিদ্যালয় পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। ওই কমিটি দোষী চারজনকে অভিযুক্ত করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়।

তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্র মাহমুদুল হাসানের ছাত্রত্ব বাতিল করে স্থায়ী বহিষ্কার এবং মাইনুল আলম, শেখ রাসেল ও মো. আরিফ হোসেনকে একবছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে তাদের আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

সংবাদ সম্মলেনে উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রক্টর এসএম সোয়েব, মো. শহীদুল ইসলাম, মো. আবদুর রশিদ ও বৈশাখী বিশ্বাস এবং ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার দিলীপ কুমার বড়ুয়া।

এদিকে গ্রেপ্তার মাহমুদুল হাসানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বুধবার (১০ জুলাই) চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম মো. সফি উদ্দিন এই আদেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (এডিসি-প্রসিকিউশন) মো. কামরুজ্জামান।

জয়নিউজ/পার্থ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...