শিরোপা জিততে ইংল্যান্ডের চাই ২৪২ রান

প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের শিরোপা জিততে ২৪২ রান প্রয়োজন ইংল্যান্ডের। এর আগে ২৭ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে পৌঁছে ক্রিকেটের জনক ইংল্যান্ড। অন্যদিকে টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে কিউইরা।

লন্ডনের লর্ডসে অনুষ্ঠিত ফাইনাল দিয়ে শেষ হচ্ছে বিশ্বকাপের ৪৬ দিনব্যাপী আসর। রোববার (১৪ জুলাই) লর্ডসের ফাইনালে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ড দলপতি কেন উইলিয়ামসন। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে কিউইরা তুলেছে ২৪১ রান।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ওপেনিংয়ে নামেন মার্টিন গাপটিল এবং হেনরি নিকোলস। দলীয় ২৯ রানের মাথায় বিদায় নেন গাপটিল। ক্রিস ওকসের বলে এলবির ফাঁদে পড়ার আগে কিউই এই ওপেনার ১৮ বলে দুই চার আর এক ছক্কায় করেন ১৯ রান। এরপর স্কোরবোর্ডে আরও ৭৪ রান যোগ করেন দলপতি কেন উইলিয়ামসন এবং ওপেনার হেনরি নিকোলস। দলীয় ১০৩ রানের মাথায় বিদায় নেন উইলিয়ামসন। লিয়াম প্লাংকেটের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে কিউই দলপতির ব্যাট থেকে আসে ৩০ রান। তার ৫৩ বলের ইনিংসে ছিল দুটি বাউন্ডারি।

দলীয় ১১৮ রানের মাথায় বিদায় নেন ওপেনার হেনরি নিকোলস। বিদায়ের আগে ফিফটি হাঁকান তিনি। লিয়াম প্লাংকেটের দ্বিতীয় শিকারে বোল্ড হয়ে ফেরার আগে নিকোলস ৭৭ বলে চারটি বাউন্ডারিতে করেন ৫৫ রান। রস টেইলর বিদায় নেন দলীয় ১৪১ রানের মাথায়। মার্ক উডের করা ৩৪তম ওভারে এলবির ফাঁদে পড়ে বিদায়ের আগে টেইলর ৩১ বলে করেন ১৫ রান। ২৫ বলে তিন বাউন্ডারিতে ১৯ রান করে ফেরেন অলরাউন্ডার জিমি নিশাম। কলিন ডি গ্রান্ডহোম (১৬) দলকে বেশিদূর নিতে পারেননি। ৪৯তম ওভারে বিদায় নেওয়ার আগে টম ল্যাথাম করেন ৪৭ রান। তার ৫৬ বলে সাজানো ইনিংসে ছিল দুটি চার, একটি ছয়।

ইংলিশ পেসার লিয়াম প্লাংকেট ও ক্রিস ওকস নেন তিনটি করে উইকেট। এছাড়া মার্ক উড ও জোফরা আর্চার নেন একটি করে উইকেট।

ইংল্যান্ড একাদশ: ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), জনি বেয়ারস্টো, জস বাটলার, জোফরা আর্চার, লিয়াম প্লাংকেট, আদিল রশিদ, জো রুট, জেসন রয়, বেন স্টোকস, ক্রিস ওকস এবং মার্ক উড।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকোলস, রস টেইলর, টম লাথাম (উইকেটরক্ষক), কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, জিমি নিশাম, ম্যাট হেনরি, লুকি ফার্গুসন ও ট্রেন্ট বোল্ট।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...