চলতি মাসেই নবম ওয়েজবোর্ড ঘোষণা

সিইউজে নেতৃবৃন্দকে মন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ

0

চলতি মাসেই নবম ওয়েজ বোর্ড রোয়েদাদ ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, সংসদের আগামী অধিবেশনে গণমাধ্যম (চাকরি শর্তাবলী) আইন-২০১৮ পাস হবে। এসময় গণমাধ্যমে বিশৃঙ্খলা এড়াতে নজরদারি বাড়ানো হবে বলেও জানান তথ্যমন্ত্রী।

বুধবার (১৭ জুলাই) চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন-সিইউজে নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় সিইউজে নেতৃবৃন্দ তথ্যমন্ত্রীকে একটি স্মারকলিপি দেন।

সিইউজে সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামলের নেতৃত্বে সৌজন্য সাক্ষাতের সময় উপস্থিত ছিলেন সিইউজের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, সহসভাপতি মোহাম্মদ আলী, যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আহমেদ কুতুব, আজাদী ইউনিট প্রধান খোরদেশ আলম, টিভি ইউনিট প্রধান অনিন্দ্য টিটো, পূর্বদেশ ইউনিট প্রধান রতন কান্তি দেবাশিষ, সুপ্রভাত বাংলাদেশ ইউনিট প্রধান স ম ইব্রাহিম, প্রিয় চট্টগ্রাম ইউনিট প্রধান বিশু রায় চৌধুরী, সিনিয়র সাংবাদিক আজাদ তালুকদার প্রমুখ।

সিইউজের দাবির প্রেক্ষিতে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, চট্টগ্রামে যে সমস্ত পত্রিকার সরকারি নিবন্ধন আছে। কিন্তু বাজারে দেখা যায় না, নিয়মিত প্রকাশিত হয় না। অথচ সরকারি হাজার হাজার টাকার বিজ্ঞাপন প্রকাশ করে মূলধারার গণমাধ্যমের অর্থ তছরুপ করছেন তা খতিয়ে দেখা হবে। প্রয়োজনে গণমাধ্যমে এসব অনিয়ম বন্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সর্বস্তরের সাংবাদিকদের পেনশন সম্পর্কে সিইউজের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হলে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার থেকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। গণমাধ্যম মালিকদের সরকার থেকে চিঠি দিয়ে পেনশন চালু করতে বলা হবে। এ ক্ষেত্রে মালিকপক্ষ সাংবাদিকদের বেতন থেকে একটি অংশ কেটে রেখে এবং মালিকপক্ষ একটি অংশ দিয়ে পেনশন চালুর বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

নবম ওয়েজবোর্ডে টেলিভিশন সাংবাদিকদের অন্তর্ভুক্ত করার কোনো আইনি সুযোগ নেই জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, টেলিভিশন সাংবাদিকদের জন্য পৃথক একটি বেতন কাঠামো গঠন করার বিষয়ে নবম ওয়েজবোর্ড কমিটি একটি পৃথক সুপারিশ করেছেন। সেই সুপারিশের আলোকে আলাদা বেতন কাঠামো তৈরির বিষয়টি সরকারের বিবেচনাধীন রয়েছে।

বর্তমান সরকার গণমাধ্যমের বিকাশের ক্ষেত্রে বহু গঠনমুলক পদক্ষেপ নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিকবান্ধব একজন প্রধানমন্ত্রী। তিনি সবসময় সাংবাদিকদের কল্যাণের কথা চিন্তা করেন। তিনি রূপকল্প ২০২১ এবং ২০৪১ সালে বাংলাদেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...