লক্ষ্মীপুরে ছেলেধরা সন্দেহে নারী গ্রেপ্তার

0

লক্ষ্মীপুরে ছেলেধরা সন্দেহে মায়া বেগম নামে এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয়রা। শনিবার (২০ জুলাই) দুপুরে সদর উপজেলার কাঞ্চনী বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাকে মারধর করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত স্বামী পরিত্যক্ত নারী মায়া বেগমকে ৫৪ ধারায় আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মায়া সদর উপজেলার দক্ষিণ টুমচর এলাকার বাসিন্দা ও মানসিক প্রতিবন্ধী নারী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই নারী কাঞ্চনী বাজার এলাকার ইসমাইলের ঘরে ঢুকে তার দুই বছরের শিশু সন্তান সিহামকে কোলে তুলে আদর করতে থাকে। দূর থেকে ইসমাইলের স্ত্রী তা দেখতে পেয়ে দৌড়ে এসে চিৎকার দিলে মায়া কোল থেকে শিশু সিহামকে রেখেই পালানোর চেষ্টা করে।

পরে স্থানীয়রা মায়াকে আটক করে মারধর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

জানা গেছে, পুলিশের কাছে আটক নারী মায়া বেগম ১০ বছর আগে তার সন্তানকে হারিয়েছেন বলে দাবি করেন। সিহামকে দেখে তার হারিয়ে যাওয়া সন্তানের কথা মনে পড়ে যায় বলেও দাবি করেন তিনি।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজিজুর রহমান মিয়া জয়নিউজকে জানান, মায়া বেগম নামে মানসিক প্রতিবন্ধী এক নারীকে ছেলেধরা সন্দেহে আটক করে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ওই নারীকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় মায়া মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

জয়নিউজ/আতোয়ার/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...