বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা বৃদ্ধির আহ্বান শিক্ষা উপমন্ত্রীর

0

দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর গবেষণা ও উচ্চশিক্ষার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকারের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে উদ্যোগী হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

রোববার (২১ জুলাই) দুপুরে নগরের টাইগারপাস এলাকার নেভি কনভেনশন সেন্টারে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপটে দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে জ্ঞান ও গবেষণার পরিধি বাড়ানোর বিষয়টি ভেবে দেখার সময় এসেছে। এ লক্ষ্যে সরকার বেসরকারি শিক্ষাখাতকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে।

নওফেল বলেন, প্রধানমন্ত্রী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কার্যক্রমে স্বচ্ছতা আনতে ২০০৮ সালে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন প্রণয়ন করেন। এর মধ্যদিয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এখন জবাবদিহিতার আওতায় এসেছে। আইনটি পাশ না হলে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বাণিজ্যিক প্রবণতা নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন হয়ে পড়তো।

প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান নওফেল বলেন, উন্নত বিশ্বে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অ্যালামনাই এসোসিয়েশন থাকে, তারা গ্র্যাজুয়েটদের কর্মজীবনে সহায়ক ভূমিকা পালন করেন। আমি আশা করব এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্ররাও এ ব্যাপারে এগিয়ে আসবেন।

তিনি গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে বলেন, আপনারা কিছুদিন পর দেশে-বিদেশে কাজের প্রয়োজনে ছুটে যাবেন। আপনাদের মাঝে আদর্শিক চিন্তা-চেতনার ভিন্নতা থাকতে পারে, তবে দেশের স্বার্থে সবাইকে একত্রিত হতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় উন্নয়নের যে সূচনা হয়েছে, তা অব্যাহত রাখতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে কাজ করে যেতে হবে।

সকালে সমাবর্তন অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সংগীত ও পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পাঠ করা হয়। এরপর প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপর নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত সিটি মেয়র এবিএম মহিউদ্দীন চৌধুরীর স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন একুশে প্রদকপ্রাপ্ত প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির চ্যান্সেলরের মনোনীত প্রতিনিধি হিসেবে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর অধ্যাপক ড. ফরাসউদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির দ্বিতীয় সমাবর্তনে অংশগ্রহণ করছেন ১ হাজার ১১২ জন গ্র্যাজুয়েট।

জয়নিউজ/হিমেল/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...