পুলিশকে পিটামু আমি: সুভাষ মল্লিক (ভিডিওসহ)

0

ট্রাফিক পুলিশদের পেটানোর ঘোষণা দিয়েছেন চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (স্থগিত কমিটি) সুভাষ মল্লিক সবুজ। এ বিষয়ে তার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। তবে তার (সুভাষ) দাবি, চকবাজার-আগ্রাবাদ রুটে চলাচলরত লেগুনা, টেম্পু ও হিউম্যান হলারগুলোর যাত্রী হয়রানি ও অনিয়ম রুখতেই তিনি একথা বলেছেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, একটি লেগুনার চালক চকবাজার থেকে আগ্রাবাদ পর্যন্ত যাবে না। এ নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হচ্ছিল। এসময় সুভাষ ঘটনাস্থলে আসলে যাত্রীরা তাকে অভিযোগ করেন, লেগুনার চালক আগ্রাবাদ যেতে চাচ্ছেন না।

লেগুনার চালক সুভাষকে বলেন, ওই রুটে পুলিশ সমস্যা করে। তখন সুভাষ বলেন, ‘পুলিশ-টুলিশ চিনি না, পুলিশকে পিটামু আমি।’

এসময় গালি দিয়ে তিনি বলেন, ‘কি বা….র পুলিশ। হাজারী (হারুনুর রশিদ হাজারী, ডিসি ট্রাফিক) ভাইয়ের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। কোনো সমস্যা নাই এ রুটে। যদি চকবাজার থেকে আগ্রাবাদ-বারিকবিল্ডিং পর্যন্ত গাড়ি না যায় তাহলে এ রুটে কোনো গাড়ি চলবে না। কথা বুঝতে পেরেছো। তোমার উপরের মহলকে একথা জানিয়ে দাও।’

ভিডিওটির বিষয়ে জানতে চাইলে সুভাষ মল্লিক সবুজ জয়নিউজকে বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীরা আমার কাছে অভিযোগ করছিল চকবাজার থেকে আগ্রাবাদ রুটের গাড়িগুলো অতিরিক্ত ভাড়া, নির্দিষ্ট গন্তব্যে না যাওয়াসহ বিভিন্নভাবে যাত্রীদের হয়রানি করছে। সোমবার সকালে বিষয়টি দেখতে চকবাজার কেয়ারি মোড়ে যাই। তখন আমার ফেসবুক আইডি থেকে লাইভ দেওয়া হয়।

পুলিশকে পিটানোর বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, লেগুনা চালকরা বলছে, ট্রাফিক পুলিশরা নাকি তাদের হয়রানি করেন, তাই তারা আগ্রাবাদ পর্যন্ত যান না। কিন্তু এটি মিথ্যা কথা। এ বিষয়ে ডিসি ট্রাফিক হারুনুর রশীদ হাজারী ভাইয়ের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তাই বলেছি, যদি কোনো ট্রাফিক পুলিশ হয়রানি করে তাহলে তাকে আমি পিটাবো।

জয়নিউজ/আরডি/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...