বিয়েবাড়িতে ডাকাতবেশে ‘প্রেমিক’ এসেছিল!

0

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে বিয়েবাড়িতে দুর্বৃত্তের হামলায় নববধূসহ ছয়জন আহত হয়েছেন। এসময় স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায় হামলাকারীরা।

বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। তবে পুলিশ বলছে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হওয়ায় ডাকাতবেশে এ হামলা চালানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রাত আড়াইটার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার চাকঢালা নতুন পাড়ার বাসিন্দা ফাতেমা বেগমের বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। এসময় ১১-১২ জন মুখোশধারী ডাকাত হামলা চালায়।

ডাকাতরা বিয়েবাড়িতে উপস্থিত লোকজনকে মারধর করে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা, মোবাইল ফোন এবং মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়।

নববধূসহ উপস্থিত নারীদের শরীর থেকে স্বর্ণের গহনা জোর করে খুলে নেওয়ার সময় কান-নাক ছিড়ে গেছে অনেকের। এ ঘটনায় আহত হন ৬ জন।

আহতরা হলেন নববধূ ফাতেমা বেগম (১৮), বর ছুরত আলম (২৭), ছৈয়দ আলম (২৬), নুরুল আলম (২৪), মোস্তফা খাতুন (৬০) এবং আনোয়ারা বেগম (৭০)।

খবর পেয়ে পুলিশ ও স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে নাইক্ষ্যংছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জয়নিউজকে বলেন, ডাকাতির ঘটনাটি বেশ নাটকীয়। মেয়েটিকে আগেও একজন বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হয়েছিল। পরে ডাকাতের বেশে ঐ লোকগুলো এসেছিল বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। ঘটনাটি নাইক্ষ্যংছড়িতে বেশ সাড়া ফেলেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জয়নিউজ/আলাউদ্দিন/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...