এ যেন পুরনো বাংলাদেশ!

0

ব্যাট করতে করতে দ্রুত উইকেট হারানো একটা সময় বাংলাদেশের অভ্যাসে পরিণত হয়েছিল। কিন্তু ২০১৫ বিশ্বকাপের পর সেই অভ্যাসটা পরিবর্তন করে এই জায়গাটায় দারুণ উন্নতি করেছিল টাইগাররা। তবে ২০১৯ বিশ্বকাপের পর চার বছর আগের সেই অভ্যাসটাই যেন আবার ফিরে এলো।

টাইগারদের ক্রিকেটে মধ্যখানে এসেছিল কড়া হেডমাস্টারখ্যাত হাথুরুসিংহ। তার হাত ধরে নজর কেড়েছিল ক্রিকেট বিশ্বের। এরপর হাথুরুসিংহের আমল শেষ হয়ে স্টিভ রোডসের অধ্যায়ের শুরু। তাঁর হাত ধরেও এগিয়ে যাচ্ছিল টাইগাররা। কিন্তু চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই বিশ্বকাপের পর রোডসের অধ্যায়ও শেষ।

এরপর শ্রীলঙ্কা সফরে খণ্ডকালীন কোচের দায়িত্ব পান খালেদ মাহমুদ সুজন। তার অধীনে টাইগাররা যেন ফিরে গেছে আগের রূপে। শুরুতে উইকেট হারানো, উইকেটে সেট হয়েও রান তোলার আগে সাজঘরে ফেরা, উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসা; এ যেন আগের বাংলাদেশ।

রোববার (২৮ জুলাই) শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে একের পর এক উইকেট হারানোর প্রতিযোগিতায় নামে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। ৮৮ রানের মধ্যে একে একে সাজঘরে ফিরে গেছেন ৬ জন প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান।

সৌম্য সরকারের পর তামিম ইকবাল। এরপর ফিরে গেলেন মোহাম্মদ মিঠুন এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। মধ্যখানে রান আউট হলেন সাব্বির রহমান। সাব্বিরের পর ফিরে গেলেন মোসাদ্দেকও। দলীয় ১১৭ রানের মাথায় ফিরে গেছেন প্রথম সারির ছয়জন ব্যাটসম্যান। ফলে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে বাংলাদেশ। এই বিপর্যয় থেকে দলকে কাটিয়ে ওঠার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন মুশফিকুর রহিম। সঙ্গে আছেন এখন মেহেদী হাসান মিরাজ।

এ রিপোর্ট লেখার সময় বাংলাদেশের রান ৪৫.২ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২০১। ৬৯ রান নিয়ে মুশফিকুর রহিম এবং তার সঙ্গী মিরাজ রয়েছেন ৪৩ রানে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...