তামিমের বিশ্রামের সঙ্গে দরকার নতুন পরিকল্পনা

0

বিশ্বকাপে হতাশাজনক পারফরম্যান্সের রেশ কাটতে না কাটতেই বাংলাদেশকে করতে হয়েছে শ্রীলঙ্কা সফর। সদ্য সমাপ্ত সিরিজে ধবলধোলাই হয়েছে টাইগাররা।

শ্রীলঙ্কা সিরিজ থেকে বিশ্রামে থাকা সাকিব আল হাসান বলছেন, এখনই সময় আগামী তিন-চার বছরের জন্য পরিকল্পনা করার। ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক তামিমের ব্যাটে নেই রান, তাকে বিশ্রামে যাওয়ার পরমার্শ দিলেন এ অলরাউন্ডার।

বৃহস্পতিবার (১ আগস্ট) ডেঙ্গু সচেতনতা বাড়ানোর উদ্দেশে রাজধানীর স্কুল শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সময় কাটাতে গিয়ে সাকিব এসব কথা বলেন।

দলের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ও ভবিষ্যত ভাবনা নিয়ে সাকিব বলেন, বিশ্রামই পারে তামিমকে স্বরুপে ফেরাতে। আমি মনে করি, ওর উচিত হবে একটা বিশ্রাম নেওয়া। নিজের ছন্দ ফিরে পাওয়া, টগবগে হওয়া এবং দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ানো। আমি নিশ্চিত ও এটা করবে।

একজন পেশাদার ক্রিকেটারের কখনোই নিজেকে ফিট না রেখে খেলা উচিত না বলে মনে করেন বাংলাদেশের পোস্টার বয় সাকিব আল হাসান।

মন্তব্যের পেছনে সাকিব দিয়েছেন যুক্তিও, আমি একটা জিনিস বিশ্বাস করি, আমার ব্যক্তিগত ধারণা যে একজন খেলোয়াড় তখনই খেলা উচিত যখন সে প্রস্তুত থাকে। প্রস্তুত না থেকে খেলা উচিত না। পুরো ফিট না থেকে খেলা উচিত না। পারফরম্যান্সের ওপর বড় ভূমিকা রাখে আপনি কতটা ফিট কিংবা আনফিট।

এসময় দলের বাজে পারফরম্যান্সের মূল্যায়নও করেন সাকিব। নিজের হতাশা না লুকিয়ে অকপটে জানালেন, ‘বিশ্বকাপে যখন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ পরিত্যক্ত হয় তখন সবাই ভেবেছে আমাদের দুই পয়েন্ট নিশ্চিত ছিল। কিন্তু এই সিরিজে প্রমাণ হয়েছে ওটা নিশ্চিত ছিল না।

এই সিরিজের কথা যদি বলি, হতাশাজনক। সিরিজ হারলেও আমরা একটা ম্যাচও জিততে পারলে আত্মবিশ্বাসের জন্য সহায়ক হতো। কিন্তু সেটা হয়নি।’

সাকিব বলেন, এলোমেলো দলটাকে গুছিয়ে তুলতে এখনই সময় পরিকল্পনার। আমি বিশ্বাস করি বিসিবি সে পথেই হাঁটবেন। বিসিবিতে যারা দায়িত্বে আছেন, হয়ত তারা এটা নিয়ে ভাবছেন। আমার মনে হয় এমন হলে গত চার-পাঁচ বছরে আমাদের ক্রিকেট যতদূর এসেছে তার থেকে বেশি সামনে এগোবে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...