‘মানবিক’ মেয়র নাছির

0

একজন মুমূর্ষু রোগীর জন্য হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) গুরুত্বপূর্ণ স্থান। কিন্তু আইসিইউর বেড সংকটের কারণে হিমশিম খেতে হতো চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। তবে আশার আলো হাসপাতালে ভর্তি হওয়া মুমূর্ষু রোগীদের প্রাণ বাঁচাতে চমেক হাসপাতালকে একটি আইসিইউ বেড দিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন

শনিবার (৩ আগস্ট) থেকে রোগী পরিচর্যায় সংযুক্ত করা হয়েছে বেডটি। ইতোমধ্যে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন একজন মুমূর্ষু রোগী।

দেশের বাইরে থেকে আমদানি করা আধুনিক এই বেডের দাম পড়েছে ৭০ লাখ টাকা।

আরও পড়ুন: ডেঙ্গুকে শূন্যের কোটায় আনতে চাই: মেয়র নাছির

মানবিক কর্মকাণ্ডের জন্য শুরু থেকেই মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বহুল প্রশংসিত। যিনি তাঁর সম্মানির পুরোটাই দুস্থ ও অবহেলিত মানুষের সেবায় খরচ করেন। চমেক হাসপাতালের আইসিইউতে একটি বেড দিয়ে মেয়র আবারো মানবিকতার পরিচয় দিলেন। এ ঘটনায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও রোগীর আত্মীয়-স্বজনরা খুবই খুশি।

চমেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহসেন উদ্দিন আহমেদ জয়নিউজকে বলেন, ‘চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৪টি আইসিইউ বেড ছিল। এরমধ্যে একটি বেড নষ্ট হয়ে যাওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বেকায়দায় পড়ে। বিষয়টি মেয়র মহোদয় অবহিত হওয়ার পর নিজ থেকেই বেড দেওয়ার ঘোষণা দেন। সপ্তাহখানেক আগে বেডটি চমেক হাসপাতালে এসে পৌঁছায়।’

মেয়রের মতো সমাজের বিত্তবানদের উচিত মানুষের কল্যাণে এগিয়ে আসা, যোগ করেন তিনি।

এ বিষয়ে মেয়র নাছির জয়নিউজকে বলেন, আইসিইউ হাসপাতালের গুরুত্বপূর্ণ একটা বিভাগ। এখানে মানুষ মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে। একটি বেডের জন্য রীতিমতো এখানে যুদ্ধ করতে হয়। চমেক হাসপাতালের আইসিইউ বিভাগের একটি বেড নষ্ট হওয়ার খবর শোনার পর আমি সঙ্গে সঙ্গে একটি বেড দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করি।

মেয়র বলেন, আমি জনগণের সেবক। যখন থেকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হয়েছি শুধু মানুষের সেবা করার ব্রত নিয়ে অগ্রসর হয়েছি। তাই চেষ্টা করি, মানুষের কোনো কাজে নিজেকে সংযুক্ত করতে। এতে মানসিক শান্তি পাই।

জয়নিউজ/আরসি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...