লক্ষ্মীপুরে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

0

লক্ষ্মীপুরের কাঞ্চনপুরে সৈয়দ আহাম্মদ নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আব্দুল মালেক নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহত সৈয়দ একই এলাকার মৃত শামছুল হকের ছেলে।

বুধবার (৭ আগস্ট) সকালে রায়পুরের কাঞ্চনপুর এলাকা থেকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে সৈয়দ আহম্মদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতের মা রিনা বেগম বাদী হয়ে আটককৃত আব্দুল মালেক ও তার ছেলে জাহেদ, খালেক ও একই এলাকার মো. বাহারকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় আব্দুল মালেককে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। অন্য আসামিদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

নিহতের মা রিনা বেগম ও এলাকাবাসী জানায়, বাড়ির সামনে নতুন করে একটি মসজিদ নির্মাণের জন্য এলাকাবাসী সৈয়দকে মসজিদের সামনে টাকা উত্তোলনের দায়িত্ব দেয়। সৈয়দ টাকা উত্তোলন করে মসজিদ ফান্ডে জমা দিয়ে আসছিলেন। কয়েকদিন ধরে সৈয়দকে টাকা উত্তোলন না করতে নিষেধ করে আসছিলেন একই এলাকার আব্দুল মালেকের ছেলে জাহেদ ও খালেক।

কিন্তু সৈয়দ টাকা উত্তোলন বন্ধ না করায় ঝগড়ায় জড়িয়ে পরে একই এলাকার জাহেদ ও খালেকের সঙ্গে। সৈয়দ আহাম্মেদ বাড়ি যাওয়ার পথে মসজিদের সামনে সন্ত্রাসীরা পথরোধ করে হাতুড়ি ও ইট দিয়ে পিটিয়ে মাথায় গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়।

পরে স্থানীয়রা আহত সৈয়দকে উদ্ধার করে রায়পুর হাসপাতাল নিয়ে যান। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায় সৈয়দ।
রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ তোতা মিয়া জয়নিউজকে বলেন, বুধবার সকালে সৈয়দ নামের ক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের মা রিনা বেগম চারজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেছেন। এরমধ্যে আব্দুল মালেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে এবং মামলাটি খুবই গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

জয়নিউজ/আতোয়ার/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...