সি বিচ থেকে সি ওয়ার্ল্ড সবখানেই মানুষের ঢল

0

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। বেড়ানোর মধ্যদিয়ে এই আনন্দের পরিপূর্ণতা পায়। সরকারি ছুটির শেষ দিন মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) নগরের সবকটি বিনোদনকেন্দ্রে ছিল উপচেপড়া ভিড়।

প্রকৃতির অপার সৌন্দর্যকে উপভোগ করতে কেউ ছুটে গেছেন পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে, আবার কেউবা মেরিন ড্রাইভ সড়কে। তবে প্রাপ্ত বয়স্কদের বেশিরভাগই তাদের শিশু সন্তানকে নিয়ে গেছেন শিশু পার্ক কিংবা ফয়’স লেক।

মঙ্গলবার নগরের প্রতিটি বিনোদনকেন্দ্রে ছিল মানুষের ঢল। পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত থেকে শুরু করে ফয়’স লেক চিড়িয়াখানা ও সি ওয়ার্ল্ড, কাজীর দেউড়ি শিশু পার্ক, কর্ণফুলী শিশু পার্ক, বহদ্দারহাট স্বাধীনতা পার্ক ও নেভাল বিচে ছিল সব বয়সের মানুষের ঢল।

পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে কাটগড় থেকে পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসা আব্দুল খালেক জয়নিউজকে বলেন, ঈদ মানে তো আনন্দ। তাই পরিবার নিয়ে একসঙ্গে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে এখানে এলাম।

এদিকে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার টিকিট কালেক্টর ইকবাল হোসেন জয়নিউজকে বলেন, ঈদের দিন থেকে এ পর্যন্ত দর্শনার্থীদের প্রচণ্ড ভিড় লেগেই আছে। সিংহ আর বাঘ চিড়িয়াখানায় দর্শনার্থীদের মূল আকর্ষণ। গত দু’দিনে ৩০ হাজারেরও বেশি দর্শনার্থী চিড়িয়াখানায় এসেছেন।
কাজীর দেউড়ি শিশু পার্কের পরিচালক নাসির উদ্দিন জয়নিউজকে বলেন, শিশুদের বিনোদনে এবার এখানে অনেক রাইডের ব্যবস্থা ছিল। চারটি রাইড একদম ফ্রি করে দেওয়া হয়েছে।

পার্ক কর্তৃপক্ষ এবার নিরাপত্তা ব্যবস্থার উপর জোর দিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুলিশের পাশাপাশি ছিল আমাদের নিজস্ব নিরাপত্তাকর্মী। বসানো হয় সিসি ক্যামেরাও। টিকিটের মূল্য রাখা হয় জনপ্রতি ৫০ টাকা।

শিশুসন্তান নিয়ে শিশুপার্কে আসা মনুজর আলম বলেন, শিশুপার্ক না এলে সন্তানের ঈদ আনন্দটাই অপূর্ণ থেকে যায়। তাই ঈদের আনন্দের ষোল আনা পূর্ণ করতে সন্তানকে নিয়ে এখানে এসেছি।

এদিকে মানুষের ঢল থাকায় পার্কের ভেতর থাকা দোকানগুলোতে বিক্রিও হচ্ছে বেশ। নাজমুল হোসেন নামের এক দোকানি বলেন, আমার দোকানে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে চটপটি ও ফুচকা। প্রতি প্লেট চটপটি ২০ টাকা আর ফুচকা ৩০ টাকা করে বিক্রি করছি। আরো রয়েছে চিকেন টিক্কা, চিকেন চপসহ হরেক রকমের খাবার। তবে শিশুদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে আইসক্রিম ও চকলেট।

ঈদের ছুটি কিংবা যে কোনো বন্ধে বিনোদনপ্রেমীদের মেলা বসে নগরের ফয়’স লোক সি ওয়ার্ল্ডে। এবারও এর ব্যতিক্রম হয়নি। ঈদের আনন্দকে রঙিন করতে এখানেও রয়েছে বাহারি আয়োজন।

কনকর্ডের ডেপুটি মার্কেটিং ম্যানেজার বিশ্বজিৎ ঘোষ জয়নিউজকে বলেন, কোরবানির ঈদ উপলক্ষে আমাদের এখানে রয়েছে বিভিন্ন প্যাকেজ। ৭০০ টাকার একটি প্যাকেজে রয়েছে ফ্রি খাবার, ফ্রি রাইড, ফয়’স লেক শিশুপার্কে ফ্রি প্রবেশ, ডিজে, ড্যান্স শো ও র‌্যাফেল ড্র।
এখানে বেড়াতে আসা সাজ্জাদ নামের এক দর্শনার্থী বলেন, পরিবার নিয়ে এখানে এসেছি। এখানে না এলে ঈদের আনন্দটাই যেন পূর্ণ হতো না। এখানকার প্যাকেজে ফ্রি রাইডের পাশাপাশি ফ্রি খাবার বেশ উপভোগ করেছি।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...