মানুষের মধ্যে শান্তি ফেরাতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব: খসরু

0

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব হয়েছিল এমন এক প্রেক্ষাপটে যখন এই জগতে নিপীড়ন, নির্যাতন ও অপরাধে মানুষের জীবন বিভীষিকাময় হয়ে উঠেছিল।

তিনি বলেন, দুষ্টের দমন করে সৃষ্টের পালনে, মানুষের মধ্যে ভাতৃত্ব সৃষ্টি করে শান্তি ফিরিয়ে আনতেই ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব। যা সবসময় প্রযোজ্য থাকবে। কারণ যুগে যুগে দুষ্ট মানুষ, দুষ্ট সমাজ জীবনকে জগৎকে অতীষ্ট করে তুলেছিল। ভগবান শ্রীকৃষ্ণের এই বিশুদ্ধ বার্তাটি কিন্তু সবার জন্য।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে জন্মাষ্টমী উদযাপন উপলক্ষে চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয়তাবাদী হিন্দু ছাত্র ফোরামের ধর্মীয় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, বিএনপি দেশে সংখ্যাগুরু বা সংখ্যালঘু তত্ত্বে বিশ্বাস করে না। দেশে মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান, চাকমা, মারমা আমরা সবাই বাংলাদেশি। এদেশে আমাদের জন্ম এ দেশেই আমাদের মৃত্যু। এটাই আমাদের সম্প্রীতির বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসলে অর্পিত সম্পত্তি আইন বাস্তবায়ন করে সবার অধিকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। হিন্দু ছাত্র ফোরামের নেতা-কর্মীদের বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা আহ্বান জানান তিনি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, শ্রীকৃষ্ণের দুষ্টের দমন সৃষ্টের পালন এই বাণীর ধারেকাছেও নেই বর্তমান সরকার। তারা অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসে মানুষের সব অধিকার হরণ করেছে। দেশে আইনের শাসন, কথা বলার অধিকার নেই।

মহানগর ছাত্র ফোরামের সভাপতি রাজীব ধর তমালের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন গীতা অমৃতম সংঘের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা কালীপদ ঘোষ। সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব চৌধুরী বিল্লুর পরিচালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি আবু সুফিয়ান, সহসভাপতি এম এ আজিজ, উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার বেলায়েত হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক ইয়াসিন চৌধুরী লিটন, শাহেদ বক্স, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, প্রকাশনা সম্পাদক মোহাম্মদ আলী মিঠু, কোতোয়ালি থানা বিএনপির সভাপতি মনজুর রহমান চৌধুরী, সহদপ্তর সম্পাদক মো. ইদ্রিস আলী, আলী আজম, বাকলিয়া থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আফতাবুর রহমান শাহীন, হিন্দু ছাত্র ফোরামের নেতা গোপাল শর্মা, পন্ডিত বিশ্বজিত চক্রবর্তী, বাপ্পী দে, অমিত ধর, মিঠুন দাশ, জীবন মিত্র রাজ, প্রাপ্ত বসাক, রিপন দেব, রিপন কান্তি নাথ, রাজু দে, রানা শীল, জিতেন্দ্র নারায়ন দাশ, বিপ্লব চৌধুরী, রাজীব দে শম্ভু, শীপন, মোহন দে।

জয়নিউজ/পার্থ/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...