মানবসেবার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের আহ্বান লতিফের

0

মানবসেবার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়ে সাংসদ এমএ লতিফ বলেন, এ কাজে দেশের নারী সমাজকে প্রধান ভূমিকা পালন করতে হবে।

‘স্বাধীনতা নারী শক্তি’-র শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য এ আহ্বান জানান তিনি। বুধবার (২৮ আগস্ট) সকালে নগরের বন্দর রিপাবলিক ক্লাবে এ শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, মানুষের মন জয় করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়িত করলে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে। ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যা ধারাবাহিক ষড়যন্ত্রের অংশ ২১ আগস্ট শেখ হাসিনার ওপর গ্রেনেড হামলা।

তিনি ১৫ ও ২১ আগস্টের ষড়যন্ত্রকারীদের বিএনপি-জামাত নেতাদের শাস্তি ও বিচারের রায় কার্যকর করার দাবি জানান।

তিনি আরো বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দেশে নারী সমাজের জীবন মানোন্নয়নে ‘স্বাধীনতা নারী শক্তি‘ নামক সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেছি। তিনি উপস্থিত নারী সমাজকে প্রধানমন্ত্রীর মতো দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে মানবসেবায় আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান।

সভায় সংগঠনের বক্তারা ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তাঁর শহীদ পরিবারের সদস্যদের ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় জড়িতদের দ্রুত রায় কার্যকর করার দাবি জানান।

নারীদেরকে সমাজ ও পরিবারের কেউ যেন বোঝা বলতে না পারে সেভাবে গড়ে তোলার জন্য এমএ লতিফ এমপির এ উদ্যোগকে স্বাগত জানান তারা।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক মিয়া বলেন, নিজেদের মধ্যে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ভুলে মানুষের জন্য কাজ করলে বঙ্গবন্ধুর আত্মা শান্তি পাবে।

তিনি নারী শক্তির সকল সদস্যদের তাদের সন্তান ও পরবর্তী প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পতাকাতলে রাখার পরামর্শ দেন। স্বাধীনতা নারী শক্তির পরিচালক অধ্যাপিকা বিবি মরিয়মের সঞ্চালনায় এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের পরিচালক আমেনা বেগম মিনা।

সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের পরিচালক মনিকা ভট্টাচার্য, হালিমা বারেক, মাহবুব আরা বেগম ও গুল নাহার বেগম, সহকারী পরিচালক গোলতাজ বেগম শান্তা, পারভিন আক্তার, বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. নুরুল আলম, ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছালেহ আহমদ চৌধুরী, ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মোহাম্মদ জোবায়ের, সাবেক কাউন্সিল মো. আসলাম, কেন্দ্রীয় যুবলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য দেবাশীষ পাল দেবু ও বন্দর সিবিএর যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক নায়েবুল ইসলাম ফটিক।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন সহকারী পরিচালক শাহীনুর আক্তার, জান্নাতুল ফেরদৌস, মোহছেনা বেগম, তাসলিমা আক্তার, রুনা আক্তার, সৈয়দা ইসরাত জাহান ইশা, রুবি আক্তার, নুর আক্তার, জাহেদা বেগম, শাহনাজ বেগম, রুবি দাশ ও জুলেখা আক্তার, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সদস্য শেখ নওশেদ সারোয়ার পিল্টু, ৩৬নং ওয়ার্ড ইউনিট আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল মান্নান চৌধুরী, ৩৬ নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি জাকির মিয়া, ইপিজেড থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হারুনুর রশিদ, ৩৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হোসেন মুরাদ, ৩৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হাসান, আইন বিষয়ক সম্পাদক জাহিদুল আলম মিন্টু, ৩৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন শাহ, সাধারণ সম্পাদক শফিউল আলম, ৪০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল বারেক, যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো. সালাহ উদ্দিন, ৪১ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মঈনুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন রাজু, ২৯ ওয়ার্ড যুবলীগ সহসভাপতি রাশেদ জোবায়েরী, সাধারণ সম্পাদক শাহীন সরোয়ার, ব্যারিস্টার কলেজ ছাত্রলীগের ভিপি জাহিদ হোসেন খোকন ও ২৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আজিজ মোল্লা।

এছাড়াও এতে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারকারী শ্রমিক কর্মচারী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. ইমাম হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম আফজল, নেছার মিয়া আজিজ, মহানগর যুবলীগ সদস্য মোহাম্মদ আক্তার হোসেন, যুবলীগ নেতা সালাহ উদ্দিন বাবর, হাসান উদ্দিন সোহেল, শহীদ শেঠ, জুয়েল, সুমন, আকবর, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা নুর উদ্দিন মারুফ ও আওয়ামী লীগের সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জয়নিউজ/পার্থ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...