সীতাকুণ্ডে গাড়িচালক হত্যার ঘটনায় মামলা

0

সীতাকুণ্ডের সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের মালিকানাধীন গাড়ির ডিপোতে পণ্যবাহী গাড়িচালককে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় সাংসদের প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মচারীকে আসামি করা হয়।

বুধবার (২৮ আগস্ট) রাতে খুন হওয়া গাড়িচালকের স্ত্রী শাহিদা আক্তার বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন।

চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা জয়নিউজকে বলেন, মামলায় মাসুম নামে একজনকে আসামি করা হয়েছে। এই মাসুম গুলিবিদ্ধ চালককে হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে গিয়েছিল। তার সঙ্গে বিরোধের জেরেই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে এজাহারে উল্লেখ আছে। আমরা মাসুমকে গ্রেপ্তারের জন্য খুঁজছি।

আসামি মো. মাসুম সীতাকুণ্ড উপজেলার সলিমপুর গ্রামের আবুল কালাম আবুর ছেলে। সে সাংসদের মালিকানাধীন গাড়ির ডিপো ‘দিদারুল আলম ব্রাদার্সের’ ফোরম্যান বলে জানিয়েছে পুলিশ।

খুন হওয়া গাড়িচালক মো. শাহজাহান সাজু (৫০) নোয়াখালী জেলার সেনবাগ উপজেলার মৃত নুরু মিয়ার ছেলে।

সাংসদের মালিকানাধীন তাহসিন এন্টারপ্রাইজের প্রাইম মুভার চালাতেন সাজু। সেই গাড়ি মেরামতের জন্য নেওয়া হয় সাংসদের মালিকানাধীন ডিপোতে।

বুধবার (২৬ আগস্ট) দুপুর ২টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন টোল রোডের অদূরে ‘দিদারুল আলম ব্রাদার্স’ ডিপোতে সাজু গুলিবিদ্ধ হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে আল আমিন হাসপাতাল এবং পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা ৭টার দিকে সাজু মারা যান।

মামলার এজাহারে সাজুর স্ত্রী শাহিদা অভিযোগ করেন- মাসুমের সঙ্গে সাজুর আগে থেকেই বিরোধ ছিল। সেই বিরোধের জেরে মাসুম নিজেই সাজুকে গুলি করে হত্যা করেছেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্বল্প সময়ের জন্য সাজুর জ্ঞান ফিরলে তিনি স্ত্রীকে বিষয়টি জানান বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

জয়নিউজ/আরডি/এমজেএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...