টস হেরে বোলিংয়ে টাইগাররা

0

আফগানদের সঙ্গে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে একমাত্র টেস্টে মুখোমুখি টাইগাররা। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান।

চট্টগ্রাম হচ্ছে বাংলাদেশের জন্য সৌভাগ্যের ভেন্যু। তবে প্রতিপক্ষ অচেনা আফগানিস্তান যারা মাত্র তৃতীয় টেস্ট খেলতে নেমেছে বাংলাদেশের বিপক্ষে, তাদের বিপক্ষে সাকিব আল হাসানের দল কেমন করে সেটাই দেখার বিষয়।

বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের বিপক্ষে কয়েন নিক্ষেপে জিতে গেলেন আফগান অধিনায়ক রশিদ খান। যিনি টস করার মধ্য দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ অধিনায়ক হিসেবে রেকর্ড গড়ে ফেললেন। ২০ বছর ৩৫০ দিন বয়সে টেস্ট অধিনায়কত্ব করতে নামলেন তিনি।

বাংলাদেশ কোনো পেসার রাখলো না দলে। অল স্পিন অ্যাটাক যাকে বলে, সেটাই করলো। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে ধরলে বাংলাদেশ খেলতে নেমেছে ৫ জন স্পিনার নিয়েই। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে ধরলে ৬ জন স্পিনার। পেস বোলিংয়ে ঠেকার কাজটা চালিয়ে নিতে পারবেন সৌম্য সরকার।

অন্যদিকে আফগানিস্তান নেমেছে চারজন স্পিনার নিয়ে। রশিদ খান তো রয়েছেনই। সঙ্গে আছেন মোহাম্মদ নবি, তরুণ স্পিনার কায়েস আহমেদ এবং জহির খান। এছাড়া একমাত্র পেসার হিসেবে রয়েছেন ইয়ামিত আহমদজাই। তিনজনের অভিষেক করিয়েছে আফগানরা। কায়েস আহমেদ, জহির খান এবং ইবরাহিম জাদরান।

বাংলাদেশ একাদশ: সৌম্য সরকার, সাদমান ইসলাম, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম এবং নাঈম হাসান।

আফগানিস্তান একাদশ: ইহসানুল্লাহ, ইবরাহিম জাদরান, রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহিদি, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবি, আফসার জাজাই (উইকেটরক্ষক), রশিদ খান (অধিনায়ক), ইয়ামিন আহমদজাই, কায়েস আহমেদ, জহির খান।

জয়নিউজ/পিডি

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...