আমদানি খরচ বেশি তাই বাড়ল পেঁয়াজের দাম!

0

পাইকারি বাজারের দাম বাড়ার খবর খুচরা বাজারে পৌঁছালে বেড়ে যায় দাম। যুক্তি হিসেবে বলা হয়, ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করতে খরচ বেশি তাই বাজারে দাম বাড়ানো হয়েছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, নতুন মূল্যে কেজি প্রতি পেঁয়াজের আমদানি খরচ ৫২-৫৩ টাকা। কিন্তু পাইকারি বাজারে তা বিক্রি হচ্ছে ৫৪-৫৫ টাকায়। এরপর খুচরা বাজারে সেই পেঁয়াজ ৬০-৭০ টাকা দরে বিক্রি হয়।

এদিকে নগরের বিভিন্ন খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেল সেই চিত্র। চকবাজারে কেজি প্রতি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০-৭০ টাকায়। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন ক্রেতারা।

আরও পড়ুন: পেঁয়াজের দাম না কমালে কঠোর ব্যবস্থা

পেঁয়াজের দাম এত বেশি কেন?- এ প্রশ্নের জবাবে খুচরা ব্যবসায়ী নেওয়াজ আলম জয়নিউজকে বলেন, আমাদের কেনা বেশি। তাই বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে। খাতুনগঞ্জ থেকে কেজি প্রতি ৫৬ টাকা দরে সোমবার পেঁয়াজ কিনেছি। এখানে নিয়ে আসতে তা প্রায় ৬০ টাকা পর্যন্ত খরচ হয়। তাই আমরা ৬৪ টাকা দরে বিক্রি করছি।

মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে দেশের অন্যতম পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জ ঘুরে দেখা যায়, ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের পাইকারি দর ৫৫ টাকা। অন্যদিকে মিয়ানমার থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের পাইকারি দর ৪২ টাকা।

আরও পড়ুন: খোলা বাজারে টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি শুরু

এসব ব্যাপারে জয়নিউজের সঙ্গে কথা হয় খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ইদ্রিসের। তিনি বলেন, ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ কেজি প্রতি ৪২-৪৩ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। কিন্তু এক দিনের মাথায় তা ৬০ টাকায় উঠেছে। বিকল্প হিসেবে মিয়ানমার থেকে এখন পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে। তবে তা পরিমাণে কম।

খাতুনগঞ্জের হামিদুল্লাহ মিয়ার বাজারে আড়তদারি প্রতিষ্ঠান ইরা ট্রেডার্সের পরিচালক মোহাম্মদ ফারুক জয়নিউজকে বলেন, আমদানি করা পেঁয়াজের বাজার ভারতের ওপর নির্ভরশীল। ভারতে দাম বাড়ায় পাইকারি বাজারে প্রতিদিন দাম বাড়ছে। তবে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আসলে দাম কমবে।

জয়নিউজ/এসআই
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...