লক্ষ্মীপুরে হুমকির মুখে শত একর ফসলি জমি

0

লক্ষ্মীপুরের বশিকপুরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার অভিযোগ উঠেছে নোয়াখালীর চাটখিলের পুরুষোত্তমপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে। এতে করে আশপাশ এলাকার ১শ’ একর ফসলি জমি রয়েছে ভাঙনের হুমকিতে। এতে হুমকির মুখে রয়েছে ফসলি জমি।

এব্যাপারে বশিকপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা শম্ভুলাল মজুমদার জয়নিউজকে বলেন, তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।
তিনি আরও জানান, নিষেধ করা শর্তেও তিনি বালু উত্তোলন অব্যাহত রেখেছে। তাকে কয়েকবার বাধা দেওযার পরও বালু উত্তোলন বন্ধ না করায় ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে উপজেলা সহকারী কমিশনারের (ভূমি) কাছে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন উল্লেখ করেন তিনি।

এরআগে আবু হেলাল মো. নুরুল আফসারসহ স্থানায়ীরা বালু উত্তোলন বন্ধ করতে জেলা প্রশাসক (ডিসি),উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), বশিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। বালু উত্তোলন বন্ধ করতে ইব্রাহিমের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্থানীয়রা।

বশিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম জিহাদী জয়নিউজকে বলেন, বিষয়টি নিয়ে তার কাছে স্থানীয় কয়েকজন অভিযোগ নিয়ে এসেছে। অভিযোগের সিদ্ধান্ত দেওয়ার আগেই তারা (নুরুল আফসার গং) ডিসি বরাবরে অভিযোগ করেন।

অভিযোগের বিষয়ে মো. ইব্রাহিম জয়নিউজকে বলেন, মাছ চাষ করার জন্য পুকুর ড্রেজিং করছেন তিনি। স্থানীয় একটি মহল স্বার্থহাসিলের জন্য তার বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে। তারাই অপপ্রচার করছে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পাল জয়নিউজকে বলেন, জেলার কোথাও বালু উত্তোলন করতে হলে অনুমতি নিতে হবে। তা না হলে বালু উত্তোলন করা যাবে না, বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ এসেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জরুরিভাবে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

জয়নিউজ/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...