বিয়ের দুই মাসেই লাশ হলো সুমি

0

পারিবারিক কলেহের জের ধরে শারমিন আক্তার সুমি (১৯) নামে এক নববধূকে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার (৭ অক্টোবর) রাতে পাঁচলাইশ থানার নাজির পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত স্বামী সোলায়মান হোসেনকে গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ আদালতে সোলায়মানের ৭ দিনের রিমাণ্ড আবেদন করেছে।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া জয়নিউজকে বলেন, সোলায়মানকে গ্রেফতার করার পর জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, সুমির গলার ওড়না টান দেওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়। কিন্তু সুমির গলায় বিভিন্ন ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। গ্রেপ্তার সোলায়মানের ৭ দিনের রিমাণ্ড আবেদন করা হয়েছে।

ওসি বলেন, সুমি ভালো একটা চাকরি করতো। চাকরির বেতন সব দিয়ে দেওয়ার জন্য তার স্বামী তাকে চাপ দিতো। এ নিয়ে তাদের মধ্যে পারিবারিক কলেহ ছিলো। পারিবারিক এসব জের ধরে এ ধরণের ঘটনা ঘটতে পারে।

দুই মাস আগে নোয়াখালীর উত্তর শুল্লিকা এলাকার কামাল উদ্দিনের ছেলে সোলায়মানের সঙ্গে সুমির বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু বিয়ের পর থেকে যৌতুকের দাবিতে সুমির ওপর শারীরিক নির্যাতন চলতো বলে পরিবারের দাবি।

জয়নিউজ/বিপ্লব/আরএইচ
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...