প্রচারণায় সরগরম সাতকানিয়া

0

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ঘিরে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় এখন সরগরম সাতকানিয়া। প্রতিটি মুহূর্ত জনসংযোগে ব্যয় করতে ব্যস্ত প্রার্থীরা। কারণ আজ (১২ অক্টোবর) মধ্যরাত (১২টার পর) থেকে যে আর প্রচারণা করা যাবে না। এমনকি নির্বাচন পর্যন্ত কোনো এলাকায় সভা, সমাবেশ, মিছিল কিংবা শোভযাত্রাও করা যাবে না।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সমর্থকদের নিয়ে প্রার্থীরা ছুটছেন ভোটারদের ঘরে ঘরে। দিচ্ছেন উন্নয়নের নানা প্রতিশ্রুতি। অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ থাকলেও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে বাড়তি আগ্রহ আওয়ামী লীগ-বিএনপি নেতাদের।

আবার যোগ্য প্রার্থী বেছে নিতে হিসাব-নিকাশে ব্যস্ত ভোটাররাও। শান্তিপূর্ণ ভোটের মাধ্যমেই তারা জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করতে চান।

১৭টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত সাতকানিয়া উপজেলা। এখানকার আড়াই লাখেরও বেশি ভোটারের মন জয় করতে এখন দম ফেলারও সুযোগ মিলছে না প্রার্থীদের।

উপজেলার রাজপথ থেকে অলিগলি সবখানেই সমানে চলছে নৌকা ও ধানের শীষের সরগরম প্রচারণা। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের পাশাপাশি প্রচারণায় ব্যস্ত ভাইস চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রাথীরাও।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এম এ মোতালেব সিআইপি আমিলাইশ, চরতী, কাঞ্চনাসহ বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ ও পথসভা করেন। কাঞ্চনা ইউনিয়নের মনুফকির হাট এলাকায় আয়োজিত পথসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন চৌধুরী।

অপরদিকে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আবদুল গাফফার চৌধুরীও শুক্রবার এওচিয়া, ছদাহা, ধর্মপুরসহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ ও পথসভা করেন।

আগামী সোমবার (১৪ অক্টোবর) উপজেলা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে ইভিএমসহ নির্বাচনসামগ্রী ভোটকেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। রোববারের (১৩ অক্টোবর) মধ্যে উপজেলার ১২৫টি ভোটকেন্দ্রে পৌঁছে যাবে সব সামগ্রী।

সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. শেখ ফরিদ জয়নিউজকে বলেন, নির্বাচনি আচরণবিধি অনুযায়ী ভোটের ৪৮ ঘণ্টা আগে থেকে এবং ভোটের পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা নির্বাচনি এলাকায় সভা, সমাবেশ, মিছিল ও শোভাযাত্রা করা যাবে না। সেক্ষেত্রে ১২ অক্টোবর রাত ১২টা থেকে ১৫ অক্টোবর ৪টা পর্যন্ত সভা, সমাবেশ, মিছিল ও শোভাযাত্রা বের করা যাবে না। বিষয়টি সব প্রার্থীকে অবহিত করা হয়েছে।

প্রার্থী হয়েছেন যারা

চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এমএ মোতালেব সিআইপি (নৌকা), দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবদুল গাফফার চৌধুরী (ধানের শীষ) এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মোনায়েম মুন্না চৌধুরী (মোটরসাইকেল)।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহজাহান (তালা), সাতকানিয়া উপজেলা বঙ্গবন্ধু সমাজকল্যাণ পরিষদ সভাপতি সালাউদ্দিন হাসান চৌধুরী (বই), জসিম উদ্দিন (চশমা), বিএনপি সমর্থিত বশির উদ্দিন (ধানের শীষ), মো. আসিফুর রহমান সিকদার (মাইক) ও মো. ওমর ফারুক (টিউবওয়েল)।

এছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তারান্নুম আয়েশা (প্রজাপতি) ও আঞ্জুমান আরা বেগম (কলস)।

জয়নিউজ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...