মাদক নির্মূল করা এখন আমার কাছে বড় চ্যালেঞ্জ: চসিক মেয়র

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক)মেয়র আজ ম নাছির উদ্দীন বলেন, মাদক একটি সামাজিক সমস্যা। জনগণের সম্পৃক্ততা ছাড়া জঙ্গিবাদ, মাদকও সন্ত্রাস দমন করা সম্ভব নয়। মাদক নির্মূল করা এখন আমার কাছে বড় চ্যালেঞ্জ।

জঙ্গি, মাদক ও দুর্নীতিবিরোধী চলমান শুদ্ধি অভিযান শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) চসিক কেবি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মেয়র আরো বলেন, আমাদের দেশের বিপথগামী যুবকদের মধ্যে যতদিন মাদকের ডিমান্ড থাকবে ততদিন মাদক সাপ্লাইয়েরও চেষ্টা করা হবে। যদি এই মাদকাসক্ত যুবকদের পুনর্বাসন কেন্দ্রে নিয়ে সুস্থ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা যায় তাহলে মাদকের ডিমান্ড যেমন কমবে, তেমনি সাপ্লাইও কমে যাবে।

দেশের অনেক যুবক এই ভয়াবহ মাদকের কবলে রয়েছে। মাদকাসক্ত যুবকের জন্য সমাজ ও পরিবারের ক্ষতি হচ্ছে। এক্ষুনি এর লাগাম টেনে ধরতে হবে। সন্ত্রাস ও ‍জঙ্গিবাদ নির্মূলে আমরা সারাবিশ্বে রোল মডেল।

আধুনিক বিশ্বের অনেক রাষ্ট্র নায়করা সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদক নিয়ন্ত্রনে আমাদের ভূঁয়সী প্রশংসা করা হয়েছে।

এসময় তিনি আগামী প্রজন্মের নাগরিককে সুস্থ, সুন্দর জীবন-যাপনে একটি নিরাপদ বাসযোগ্য নগরী গড়ে তোলার জন্য সবাইকে সচেতন হওয়া ও সহযোগিতার আহ্বান জানান।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তারুণ্যের সভাপতিও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মো. আবদুর রশীদ লোকমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. আমিনুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন আনজুমানে মুত্তাবেয়িনে গাউছে মাইজভাণ্ডারীর মহাসচিব ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মাহমুদুল হক।

এতে উপস্থিত ছিলেন সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার এসএম মোস্তাইন হোসেন বিপিএম, প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সালাউদ্দিন আহমেদ, চসিক কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, সুচিন্তা বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বিভাগের সমন্বয়কারী জিনাত সোহানা চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা আমিরুল ইসলাম, হাজী সামসুদ্দিন আহমেদ, হাজী ইদ্রিস কাজেমী, আনোয়ারুল ইসলাম বাপ্পী, মো. সোলায়মান, সালাউদ্দিন মামুন ও তামজিদ কামরান, কাজী আবদুচ ছাদেক নান্না, এমএ হান্নান পলাশ, আবু নাসের, সৈয়দ আচরাউল্লাহ আদিল, জাবেদুল ইসলাম শিপন, মুফিজুর রহমান দুলাল, আবদুল্লাহ আল মামুন, ইয়াছির আরাফাত, এমএ নেওয়াজ, এসএস মুন্নাশাহ, আইয়ুব চৌধুরী, মো. নাসির, রকিবুল ইসলাম অপু, জাহেদ আলম, আলাউদ্দীন বাবু, যীশু দাশ, রাশেদুল ইসলাম, শাহিন খান, ওমর ফারুক জিসান, মঞ্জুরুল করীম, ইমরান হোসেন আরফিন, শেখ মো. রাফান, আনিসুর রহমান আকিব ও মো. আরমান প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর চলমান সুদ্ধিঅভিযানে ব্যাপক জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য তারুণ্যের পক্ষ থেকে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ, সুচিন্তা বাংলাদেশ চট্টগ্রাম বিভাগ, আনজুমানে মুত্তাবেয়নে গাউছু মাইজভাণ্ডারী, শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্কুল, লিও জেলা ৩১৫বি-৪, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর, আ জ ম নাছির উদ্দীন বল্ড ডোনার গ্রুপ, ডিঙ্গি, বন্ধন ক্লাব, যুব স্কোয়ার চট্টগ্রাম, সিটিজি ব্লাড ব্যাংক, পাঁচলাইশ যুব সংঘ, দেওয়ানহাট সমাজকল্যাণ পরিষদ, প্রতিজ্ঞা সংঘ, ষোলকবহর মহল্লা সমাজ কল্যাণ সমিতি, কাট্টলী স্পোটর্সম্যান রিক্রেশান ক্লাব, জীবন্ত ব্লাড ব্যাংক, নীলগিরি খেলাঘর আসর এবং প্রজন্ম’ ৭১ সংগঠন সমূহকে ক্রেস্ট প্রদান করে সম্মানিত করা হয়।

জয়নিউজ/হিমেল/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...