সহসা পেঁয়াজের দাম কমবে না: বাণিজ্যমন্ত্রী

0

আগামী এক মাসের আগে পেঁয়াজের দাম কমার সম্ভবনা নেই বলে জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী। তবে মিশর থেকে সপ্তাহ খানেকের মধ্যে পেঁয়াজ আসলে কেজি প্রতি সত্তর থেকে আশি টাকায় পেঁয়াজ পাওয়া যাবে বলে তিনি জানান।

রোববার (২৭ অক্টোবর) সকালে নগরের আউটার স্টেডিয়ামে ৬ষ্ঠ বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও রপ্তানি মেলা উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলে।

মন্ত্রী বলেন, পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি আমাদের জন্য একটা শিক্ষা। আগামীতে যাতে এই রকম না হয় সেটা ব্যবস্থা করতে হবে। আমরা এখন খাদ্যে সারপ্লাস করছি। পেঁয়াজ নিজেরা উৎপাদন করতে পারলে ভবিষ্যৎতে এই সংকট মোকাবেলা করা যাবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী বলেন, চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহার করতে চায় পূর্ব ভারতের ৫ কোটি মানুষ। এইটা করা গেলে অনেকের কর্মসংস্থান হবে। আমাদের চট্টগ্রাম বন্দরের সক্ষমতা আরো বাড়বে। তাদের এখন এক হাজার ২০০ কিলোমিটার যেতে হয় কলকাতা বন্দর যেতে। চট্টগ্রাম বন্দর হলে অর্ধেক পথে দাঁড়াবে।

তিনি বলেন, আমি ৫৩ বছর ধরে রাজনীতি করি আর ব্যবসায়ী করি ৪৫ ধরে। কিন্তু আমার চেতনায় রয়েছে বাংলাদেশ। আমি আর আমার বাবা একসাথে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। এইটাই সবচেয়ে বড় গর্বের। ব্যবসা বাণিজ্য আমরা করবো, কিন্তু ইতিহাসটা জানা থাকা দরকার। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা শুধু তাকে হত্যা নয়। এর মধ্যে দিয়ে আবার মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি মাথা তুলেছে।

তিনি বলেন, ২১ বছর পর ক্ষমতায় ফিরে এলেন শেখ হাসিনা। তিনি বাংলাদেশকে পরিবর্তন করে দিয়েছেন। তার একটাই স্বপ্ন, তিনি বাংলাদেশকে সোনার বাংলায় পরিণত করতে চান। উন্নত জীবন গড়তে মন্ত্রী ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চান।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) কমিশনার মো. মাহবুবর রহমান বলেন, এই মেলার মধ্যে দিয়ে বাণিজ্যের দ্বার উন্মোচিত হবে। চট্টগ্রামের মানুষ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস যেমন কিনতে পারবে, তেমনি ব্যবসায়েরও প্রসার হবে। দেশে যদি আর একটিও হলি আর্টিজেন, শোলাকিয়ার ঘটনা ঘটত তাহলে জাপানসহ অন্যরা ব্যবসা গুটিয়ে নিত। চট্টগ্রামের ব্যবসা ও ব্যবসায়ীরা যাতে নিরাপত্তাহীনতায় না থাকে সেইজন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ঈন্ডাষ্ট্রির (সিএমসিসিআই) সভাপতি খলিলুর রহমান বলেন, বাণিজ্য মেলা শুধু পণ্যের কেনা বেচার মেলা নয়। এর মধ্যে দিয়ে আমাদের দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত পণ্যের বাজারজাতকরণ হচ্ছে। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে আমরা বিদেশ রপ্তানি বাণিজ্যের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে। মেলার জন্য আউটার স্টেডিয়াম বরাদ্দ দেওয়ায় তিনি সিজেকেএস এর সাধারণ সম্পাদক, সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনকে ধন্যবাদ জানান।

এতে আরো বক্তব্য রাখেন সিএমসিসিআই এর পরিচালক ও মেলা কমিটির আহবায়ক আমিনুজ্জামান ভূঁইয়া, সহ সভাপতি এ এম মাহবুব চৌধুরী ও আব্দুস সালাম।

মেলায় ২৪০ টি দোকান, চারটি প্যাভিলিয়ন, কিডস জোন, খাবারের দোকান আছে। মাসব্যাপী এই মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত।

জয়নিউজ/পার্থ/পিডি

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...