তাহসানের সেঞ্চুরি

0

 তাহসান রহমান খান। একজন মাল্টিটেলেনটেড প্রফেশনাল ব্যক্তিত্ব। একাধারে তিনি বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় গায়ক, গীতিকার, সুরকার, অভিনেতা, মডেল এবং উপস্থাপক। এছাড়াও তিনি একজন সফল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকও। প্রায় দুই দশক ধরে কণ্ঠের যাদু দিয়ে শ্রোতা মাতিয়ে আসছেন তিনি। গানের পাশাপাশি তিনি নাটকে শততম স্থান র্স্পশ করেছেন।

জয়া আহসানের বিপরীতে আপসানা মিমির ‘অপবিট’ ধারাবাহিক নাটক দিয়ে ২০০৪ সাল থেকে শুরু হয় তাহসানের নাটকের পথচলা। চলিত বছরে মাবরুর রশিদ বান্নাহ পরিচালিত ‘কল্পতরু’ হচ্ছে তাঁর শততম নাটক।

তাহসান জানান, অভিনয়শিল্পী ও পরিচালক আফসানা মিমির কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। কারণ, এই নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে তিনে আফসানা মিমির কাছ থেকে একটা কৌশল শিখেছিলেন, যা এখনো কাজ করার সময় তাঁর কাজে লাগে।

নাটকে সেঞ্চুরি করার বিষয়টি তাহসান খান তাঁর অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে জানান,  ‘আমি দেখতাম, ভক্তরা আমার কাছে গানের সংখ্যা হিসাব করে পাঠাত। কিছুদিন আগে এক ভক্ত ৯৭টি  নাটকের একটি তালিকা পাঠায়। এরপর বিষয়টি আমাকে ভাবায়। কাছের পরিচালক ও একজন প্রযোজক শততম নাটক নিয়ে পরিকল্পনা শুরু করলেন। নানা ধাপ পেরিয়ে আমরা কেক কেটে নাটকের শুটিং শুরু করি। আমার ১০০তম নাটক “কল্পতরু” শততম কাজটা একটু আলাদা ভাবে করতে চেয়েছিলাম। গ্রুপ এ গল্প চেয়ে একটা পোস্ট দেয়া হয়েছিলো দুমাস আগে। সেখানে ৭০টি গল্প থেকেই ২৫টি গল্প বাছাই করা হয়, অতপর চূড়ান্তে পৌছায় এই গল্প। পাঠিয়েছেন ফারিয়া কবির আভা। পরিচালনায় মাবরুর রশিদ বান্নাহ। আর প্রথম বারের মতো সহশিল্পী শায়লা সাবি। প্রযোজনায় আকবর হায়দার মুন্না।’

তাহসান অভিনীত দর্শকপ্রিয় নাটকের মধ্য রয়েছে, তার উল্লেখ যোগ্য নাটক গুলো হলো, মনফড়িং এর গল্প, মনের মত মন, নীল পরী নীলাঞ্জনা, ল্যান্ডফোনের দিনগুলোতে প্রেম, লাভলেইন, কথাবন্ধু মিথিলা, চিনিগুঁড়া প্রেম, এংরি বার্ডস, তোমায় ভালোবেসে, মিস্টার এন্ড মিসেস, আমার গল্পে তুমি, দূরবীন, বাড়ী ফেরা, বিভেদ, দ্বিতীয় মাত্রা, অন্তগর্তা, পরিনতি, দ্বিতীয় কৈশর, লেডি কিলার,  লেডি কিলার-২, ইত্যাদি।

জয়নিউজ/আরএস/পিডি

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...