পুরো নগরকে এলইডি বাতিতে আলোকিত করবে চসিক

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) উদ্যোগে নগরের ৪১টি ওয়ার্ডকে শতভাগ আলোকায়নের আওতায় আনা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে বসানো হবে ২০ হাজার ৬০০টি লাইট এমিটিং ডায়োড (এলইডি) বাতি।

চসিক সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের জুলাই থেকে ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকল্প মেয়াদে প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে ১০ কিলোমিটার করে মোট ৪১০ কিলোমিটার সড়কে এলইডি বাতি বসানো হবে।

প্রকল্পের আওতায় পাঁচ মিটারের বেশি প্রশস্ত সড়কে ৪০, ৬০, ১০০ ও ২৫০ ওয়াটের ২০ হাজার ৬০০টি এলইডি বাতি, ২০ হাজার ২৬৭টি জিআই পোল ও ৫০৭টি কন্ট্রোল সুইচ বক্স বসানো হবে।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) ২৬০ কোটি ৮৯ লাখ ৮৭ হাজার টাকার এ প্রকল্পের প্রশাসনিক অনুমোদন দেয় সরকারের পরিকল্পনা বিভাগ।

প্রকল্পে ঋণ হিসেবে ২১৪ কোটি ৪৬ লাখ ৮২ হাজার টাকা দেবে ভারত। এছাড়া ৪৬ কোটি ৪৩ লাখ ৫ হাজার টাকা দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।

এর আগে ২০১৭ সালে বাংলাদেশের ‘টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ্বালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ’ এবং ভারতের ‘এনার্জি ইফিসিয়েন্সি সার্ভিস লিমিটেড’ এর সমঝোতা চুক্তি হয়।

চুক্তির প্রেক্ষিতে চসিক প্রকল্পটি গ্রহণ করে। ২০১৮ সালের ২২ অক্টোবর প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির সভায় এটি অনুমোদন পায়।

এ প্রসঙ্গে চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, নির্বাচনি প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী শহরকে শতভাগ আলোকায়ন করার অঙ্গীকার পূরণ করতে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি।

ইতোমধ্যে ৮৭ কিলোমিটার সড়কে এলইডি বাতি বসানো হয়েছে। বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের প্রকল্পের মাধ্যমে ৫৮ কিলোমিটার এবং নিজস্ব অর্থায়নে ২৯ কিলোমিটার সড়কে এলইডি বাতি বসানো হয়। জাইকার অর্থায়নে আরও একটি প্রকল্পের আওতায় ৮০ কিলোমিটার সড়কে এলইডি বাতি লাগানো হবে। এরমধ্যে ৫০ কিলোমিটার সড়কের জন্য দরপত্র কার্যক্রম চলছে।

তিনি বলেন, প্রশাসনিক অনুমোদন পাওয়া প্রকল্পের আওতায় ২০ হাজার ৬০০টি এলইডি বাতি বসানো হবে। এর ফলে শহরের অলি-গলি আলোকিত হবে। পাশাপাশি বিদ্যুৎ বিলও সাশ্রয় হবে।

জয়নিউজ/আরডি/বিআর
আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...