৪৫ বছরে ৬০ বিয়ে, অবশেষে আটক

0

মাত্র ৪৫ বছর বয়সে ৬০টি বিয়ে করে অবশেষে ৬০তম স্ত্রী রোজী খানমের মামলায় আটক হলেন আবু বক্কর নামে এক ব্যক্তি। ভুয়া নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে মূলত অসহায় মেয়েদের বিয়ে করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ায় ছিল তার ব্যবসা।

অবশেষে মাস্টার্স পড়ুয়া রোজী খানমের মামলায় ধরা পড়েছেন প্রতারক বক্কর। ঘটনাটি ঘটেছে নেত্রকোনার ইসলামপুরের গোয়ালেরচর ইউনিয়নের সভারচর গ্রামে।

শনিবার (২ নভেম্বর) ভোররাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। আটক আবু বক্কর একই এলাকার বাদশা মিয়ার ছেলে।

রোজী খানমের মামলা সূত্রে জানা যায়, রোজীর এক আত্মীয়ের সঙ্গে আবু বক্কর পূর্ব পরিচিত হওয়ায় ওই এলাকায় যাতায়াত করত। সে নিজেকে ইনসেপ্টা ফার্মাসিস্ট জেলা এরিয়া ম্যানেজার পরিচয় দিত। অবিবাহিত পরিচয় দিয়ে চলতি বছরের আগস্ট মাসে নাম শাহিন আলম, পিতা আকরাম, গ্রাম-কুতুবেরচর, সাধুরপাড়া, বকসীগঞ্জ, জামালপুর ঠিকানা ব্যবহার করে রোজীকে বিয়ে করে।

বিয়ের পর রোজীর বাড়িতেই বসবাস করে বক্কর। এসময় রোজীর পরিবারের কাছে যৌতুকের দুইলাখ টাকা দাবি করে। এতে রোজীর পরিবার অপারগতা প্রকাশ করলে প্রতারক আবু বক্কর কৌশলে শ্যালককে ওষুধ কোম্পানির চাকরি দেওয়ার কথা বলে শ্বশুরের কাছ থেকে ৮০ হাজার টাকা নিয়ে গাঁ ঢাকা দেয় এবং তাদের সঙ্গে সকল যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়।

পরে স্ত্রী রোজীর পরিবার খবর নিয়ে জানতে পারে ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করে বিয়ের নামে প্রতারণা করেছে বক্কর। এ ঘটনায় রোজী বেগম বাদী হয়ে নেত্রকোনার পূর্বধলা থানায় মামলা করেন।

রোজী খানমের মামলার প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার গোয়ালেরচর ইউনিয়নের সভারচর গ্রামে নিজের বাড়ি থেকে আবু বক্করকে আটক করে পুলিশ।

আটক আবু বক্কর জানায়, সে ৬০টি বিয়ে করলেও তার সাতটি সন্তান রয়েছে। শুধু টাকার লোভে এতগুলো বিয়ে করেছে। সব জায়গায় টাকা পাওয়ার পরই ফেলে এসেছে বিবাহিত স্ত্রীদের। সে বিয়ে করতে পেশা হিসেবে নিজেকে কখনো ব্যবসায়ী, রিপ্রেজেন্টেটিভ, উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, অবিবাহিত ও বৌ মারা গেছে এসব কথা বলে ভিন্ন নাম-ঠিকানা ব্যবহার করত। নিজ উপজেলা ইসলামপুরের ঠিকানা সে কখনই ব্যবহার করত না। বর্তমানে নিজের বাড়িতে প্রথম স্ত্রী সাজেদা বেগমসহ দুই স্ত্রী ও সাত সন্তান রয়েছে।

ইসলামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. আনছার আলী জানান, প্রতারণার মাধ্যমে আবু বক্কর ৬০টি বিয়ে করার কথা নিজে স্বীকার করেছে। স্ত্রী রোজী খানমের মামলায় ইসলামপুর থানা পুলিশের সহায়তায় তাকে আটক করে নেত্রকোনার পূর্বধলা থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

জয়নিউজ/বিআর

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...