আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে চলছে ভবন নির্মাণ, নীরব সিডিএ!

0

বাপ-দাদার ভিটেবাড়ি বেদখল হওয়ায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন চট্টগ্রাম নগরের চান্দগাঁওয়ের শমসের পাড়ার আবুল বশর ও আবুল কাসেমের পরিবার। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ ফরিদ ও বাহাদুর মিলে সন্ত্রাসীদের দিয়ে ভিটেবাড়িতে থেকে উচ্ছেদ করেছেন বলে অভিযোগ এ দুই পরিবারের। আর সে জায়গায় ৯তলা বাড়ি তৈরি করা হচ্ছে। আদালতে মামলা থাকার পরও থেমে থাকেনি নির্মাণ কাজ। অথচ ইমারত নির্মাণে তদারকির জন্য যে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (সিডিএ) রয়েছে তারাই নাকি নীরব ভূমিকা পালন করছে।

সম্প্রতি চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে এমনই অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেন আবুল বশরের ছেলে মো. ইলিয়াছ। এসময় আবুল বশর ও আবুল কাসেমের পরিবারের অন্য সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে তারা জানান, চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার কাছে মেহের আলী তালুকদারের বাড়ির আবুল বশরের পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে আদালতে ২০০৬ সাল থেকে একটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। ২০১৬ সাল প্রথম যুগ্ম জেলা জজ আদালত আবুল বশরের পৈত্রিক সম্পত্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকা এবং আদালতে মামলা চলা অবস্থায় কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ফরিদ ও বাহাদুর নামে ওই দুইজন এ জায়গায় ৯ তলা বাড়ি নির্মাণ করেছে।

তারা আরও জানায়, ১৩ অক্টোবর রাতে স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহাদুরের নেতৃত্বে তার বাহিনীর এয়াকুব, ফরিদ, জামাল, রাজু, আশিক, তাজুসহ ১৫/২০ জনের একটি সশস্ত্র দল নিয়ে আবুল বশরের পৈত্রিক সম্পত্তি দখল করতে গেলে তার পরিবারের সদস্যরা বাধা দেয়। এ সময় সন্ত্রাসীদের কিরিচের কোপে ও লোহার রডের আঘাতে নুরুল আলম মানিক, নূর হোসেন, আলী আজগরসহ ৫ জন আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করলে পুলিশ এসে আহতদের উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে পাঠায়।

জয়নিউজ/পিডি

 

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...