চবির ডি ইউনিটের ফলাফলে বাদ পড়ল মানোন্নয়নের পরীক্ষার্থীরা!

0

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) স্থগিতকৃত ডি ইউনিটের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এর আগে পরীক্ষায় কারিগরি ত্রুটির কারণে এই ইউনিটের একাংশের পুনঃপরীক্ষা নেওয়া হয়। ফলাফল প্রকাশে ২০১৮ সালে আবেদনের যোগ্যদের বাদ দেওয়া হয়েছে৷

১ নভেম্বর জয়নিউজে ‘ডিনদের ভুলে আবেদনের অযোগ্যরাও দিয়েছে ভর্তি পরীক্ষা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। কিন্তু ‘ভর্তির অযোগ্যরা’ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ‘অস্পষ্ট’ অভিযোগ তুলে তাদের ভর্তির দাবি জানায়।

তাদের ভর্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই হিমশিম খাচ্ছে প্রশাসন। তবে ভর্তি কমিটির নির্দেশনায় ডি ইউনিট থেকে গত বছরের যোগ্যদের বাদ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টায় ফলাফল প্রকাশ করা হয়। এতে অংশ নেওয়া ৪৪ হাজার ৮৬৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩৪ শতাংশ উত্তীর্ণ হয়েছেন।

এর মধ্যে ২০১৮ সালে চবিতে আবেদনের যোগ্য হয়েও ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিকে মানোন্নয়ন পরীক্ষা দিয়ে চবিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে তাদের ফলাফল ‘অ্যাবসেন্ট অর ক্যানসেল্ড’ দেখাচ্ছে।

জানা গেছে, ডি ইউনিটে মানোন্নয়ন দিয়ে প্রায় ৩ হাজার ভর্তিচ্ছু উত্তীর্ণ হয়েছে। এদের মধ্যে যারা গতবছর যোগ্য ছিল তাদের বাদ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডি ইউনিটের কো অর্ডিনেটর ও শিক্ষা অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল ফারুক।

তিনি জয়নিউজকে বলেন, ভর্তি কমিটির নির্দেশনায় নীতিমালা অনুযায়ী যেসব পরীক্ষার্থী অযোগ্য ছিল তাদের বাদ দিয়েছি। তবে সংখ্যাটি বেশি নয়।

এ বিষয়ে কথা বলতে ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব ও একাডেমিক শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রার এসএম আকবর হোছাইনের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

জয়নিউজ/নবাব/পিডি

 

 

 

আরও পড়ুন
লোড হচ্ছে...